প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

মাগুরায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে চার গ্রামে সংঘর্ষে আহত ২০

 

মাগুরা প্রতিনিধি: মাগুরার শ্রীপুর উপজেলায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সব্দালপুর, নহাটা, দুর্গাপুর ও মোল্যাডাঙ্গি গ্রামে শুক্রবার রাতে সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের সময় ৪৫টি বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ লুটপাট ঠেকাতে ৫২ রাউন্ড গুলি ছোড়ে।

পুলিশ জানায়, এলাকার আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে নহাটা গ্রামের কনক, সব্দালপুর গ্রামের হাফিজ মেম্বার ও দুর্গাপুর গ্রামের আলাম মোল্যার সঙ্গে সব্দালপুর গ্রামের সাব্বির মোল্যার বিরোধ চলে আসছিল। এরই সূত্র ধরে শুক্রবার সন্ধ্যায় সব্দালপুর গ্রামের হাফিজ মেম্বারের সমর্থক রিপন ও তপন ওই গ্রামের সাব্বির হোসেনের সমর্থক পান্নুকে সব্দালপুর বাজারে মারধর করে। খবর পেয়ে সাব্বির সমর্থকরা তাদের প্রতিরোধ করতে গেলে উভয় গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে ২০ জন আহত হন। সংঘর্ষ চলাকালে হাফিজ মেম্বর, কনক ও আলাম মোল্যার সমর্থকরা সব্দালপুর, নহাটা, দুর্গাপুর ও মোল্যাডাঙ্গি গ্রামের সাব্বির সমর্থক জিয়া, সবুর, শরিফুল, সাইফুল আরিফুল ইজারুল, রাজ্জাক, মান্নান, হান্নান, লতিফ, আতর, হাফিজ, মিলন, রফিক, মোহাম্মদ, আজিজার, লেখন, খোকন, বাবু মেম্বার,  বাড়িসহ ৪৫টি বাড়ি ভাঙচুর করে। এ সময় তারা কমপক্ষে ১০টি গরু, নগদ টাকা গহনাসহ বাড়ির মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল ইসলাম জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৫২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ ঘটনায় সুজন নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। লুট হওয়া তিনটি গরু ও ছয়টি ছাগল উদ্ধার করে মালিককে ফেরত দেওয়া হয়েছে। বাকিগুলো উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।