সুস্বাস্থ্য

মাথাব্যথার নানা কারণ

সামান্য কারণ কিংবা কারণ ছাড়াও মাথাব্যথা হতে পারে। ফলে দৈনন্দিন কাজে ব্যাঘাত ঘটে। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে অনেকে পেইনকিলার সেবন করে থাকেন। এতে অল্প সময়ের জন্য স্বস্তি মিললেও পরবর্তী সময়ে ক্ষতির মুখে পড়তে হয়। সুতরাং, যেসব কারণে মাথাব্যথা হয়ে থাকে, তা সঠিকভাবে নির্ণয় করতে পারলে ব্যথা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। জেনে নেওয়া যাক মাথাব্যথার কয়েকটি কারণ।
# রাতের পর রাত না ঘুমিয়ে জেগে থাকা মাথাব্যথার অন্যতম একটি কারণ। মাত্র কয়েক ঘণ্টা ঘুমানো, বারবার ঘুম ভাঙা প্রভৃতি কারণেও হতে পারে মাথাব্যথা। এমনকি মাইগ্রেনের সমস্যাও দেখা দিতে পারে। কেননা, ঘুমের অভাব হলো মাইগ্রেন ব্যথার সবচেয়ে বড় একটি কারণ
# অতিরিক্ত শক্ত বা নরম বালিশ ও তোশক ব্যবহার করলে বা বেকায়দা অবস্থায় ঘুমালে মাথা ও ঘাড়ে চাপ পড়ে। এ থেকে মাথাব্যথা হতে পারে। মাথাব্যথা থেকে মুক্তি পেতে চাইলে আরামদায়ক অবস্থায় ঘুমান। বালিশ ও তোশক পাল্টাতে পারেন
# দুশ্চিন্তা মাথাব্যথার আরেকটি প্রধান কারণ। পুরো মাথার চারপাশে শক্ত করে বেঁধে রাখার মতো ব্যথা হয় এ সময়ে। কাজের চাপ, বিশ্রামের অভাব বা কোনো কিছু নিয়ে চিন্তিত থাকলে তীব্র মাথাব্যথা হয়
# দীর্ঘদিন ধরে উচ্চ রক্তচাপ থাকলেও অনেকে তা খেয়াল করেন না। এ উচ্চ রক্তচাপের কারণে মাথাব্যথা হতে পারে। এর সঙ্গে চোখে ঝাপসা দেখার সমস্যাও হতে পারে
# মস্তিষ্কে নানা ধরনের সমস্যা যেমন টিউমার, সিজার, ব্রেনের রক্তনালিতে কোনো ইনফেকশন প্রভৃতি কারণে মাথাব্যথা হতে পারে। এ ব্যথাকে সেকেন্ডারি ব্যথা বলা হয়। এমন পরিস্থিতিতে দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া উচিত
# ঘুমের মাঝে দাঁত কিড়মিড় করার কারণে মাথাব্যথা হতে পারে। এতে দাঁত ও চোয়ালের ওপর বেশি চাপ পড়ে। পেশিতে ব্যথা হওয়ার পাশাপাশি মাথাব্যথাও হয়। এমনকি দাঁতেরও ক্ষতি হতে পারে। সমস্যা সমাধানে ডেন্টিস্টের সঙ্গে কথা বলে মাউথ গার্ড তৈরি করে নিতে পারেন
# সিøপ অ্যাপনিয়া হলো ঘুমের মাঝে অনিয়মিত শ্বাস-প্রশ্বাসের একটি সমস্যা। এ কারণে শরীরে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা বেড়ে যেতে পারে, ফলে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর মাথাব্যথা হতে পারে
# দিনের বেলায় বারবার কফি পান করলে পরদিন সকালে মাথাব্যথা হতে পারে। এ সমস্যা দূর করতে কফি পান কমিয়ে দিন। বিশেষ করে দুপুরের পর কফি পান বন্ধ রাখার চেষ্টা করুন। শুধু কফি নয়, কড়া চা ও চকোলেট খেলেও একই সমস্যা দেখা দিতে পারে।

 

সর্বশেষ..