বিশ্ব সংবাদ

মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করল রাশিয়া

শেয়ার বিজ ডেস্ক: লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির আকাশ থেকে গত নভেম্বরে নিখোঁজ হওয়া যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোনটি গুলি করে ভূপাতিত করেছিল রাশিয়া এমনটাই মনে করে ওয়াশিংটন। গত শনিবার মস্কোর কাছে ওই ড্রোনের ধ্বংসাবশেষ ফেরত দেওয়ার দাবি জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী। খবর: রয়টার্স।

এর আগে গত ২২ নভেম্বর ইউএস আফ্রিকা কমান্ডের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ত্রিপোলির আকাশ থেকে তাদের একটি ড্রোন নিখোঁজ হয়েছে। স্থানীয় নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও উগ্র গোষ্ঠীগুলোর তৎপরতা নজরদারি করতে ড্রোনটি সেখানে পাঠানো হয়েছিল।’ ওই বিবৃতিতে ড্রোনটির ভাগ্যে কী ঘটেছে, সে সম্পর্কে কোনো উপসংহার না টেনে বলা হয়, এ ব্যাপারে তদন্ত শুরু হয়েছে।

শনিবার মার্কিন বাহিনীর আফ্রিকা কমান্ডের প্রধান  জেনারেল স্টিফেন টাউনসেন্ড বলেন, ত্রিপোলিতে মোতায়েন রুশ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থেকে নিক্ষিপ্ত গুলির আঘাতে ড্রোনটি বিধ্বস্ত হয়েছে। তবে গুলি করার সময় এটি যে মার্কিন ড্রোন, দৃশ্যত রুশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তা বুঝতে পারেনি।

জেনারেল টাউনসেন্ড বলেন, ভূপাতিত হওয়ার পর তারা নিশ্চয়ই জেনেছে ড্রোনটি কাদের ছিল। এর ধ্বংসাবশেষ ফেরত দিতে তিনি রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানান। একই সঙ্গে ত্রিপোলিতে চলমান সহিংসতার জন্যও রাশিয়াকে দায়ী করেন তিনি।

জীবনযাপনের মানের দিক থেকে তেলসমৃদ্ধ লিবিয়া একসময় আফ্রিকার শীর্ষে ছিল। স্বাস্থ্য ও শিক্ষা ছিল পুরোপুরি রাষ্ট্রের দায়িত্ব। তবে যে রাজনৈতিক ও সামাজিক স্থিতিশীলতা ওই ঐশ্বর্য নিশ্চিত করেছিল, সেটি পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যায় ২০১১ সালে যখন পশ্চিমা সমর্থিত বিদ্রোহীদের হাতে কর্নেল মুয়াম্মার গাদ্দাফির পতন হয়। তারপর থেকে লিবিয়ায় চলছে সীমাহীন সংঘাত। গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যুত ও নিহত হওয়ার পর ত্রিপোলিতে জাতিসংঘ সমর্থিত একটি মনোনীত সরকার ক্ষমতায় আসে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..