প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

মালয়েশিয়ার জিডিপি প্রবৃদ্ধি ধারণার চেয়ে বেশি বেড়েছে

বছরের প্রথম প্রান্তিক

শেয়ার বিজ ডেস্ক: চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) মালয়েশিয়ার জিডিপি প্রবৃদ্ধি ধারণার চেয়েও বেশি বেড়েছে। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অর্থনীতিবিদদের ধারণা ছিল, প্রথম প্রান্তিকে জিডিপি আগের প্রান্তিকের চেয়ে সামান্য বেড়ে চার শতাংশে উত্তীর্ণ হবে। কিন্তু এ সময়ে দেশটির প্রবৃদ্ধি পাঁচ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে। মালয়েশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংক (ব্যাংক নেগারা মালয়েশিয়া) গতকাল শুক্রবার এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, চাহিদা পুনরুদ্ধার ও শ্রমবাজার শক্তিশালী হওয়ায় দেশটির জিডিপিতে এমন ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে। খবর: আল-জাজিরা।

দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, জানুয়ারি থেকে মার্চে মালয়েশিয়ার জিডিপি বেড়েছে পাঁচ শতাংশ, যদিও আগের প্রান্তিকে দেশটির প্রবৃদ্ধির হার ছিল তিন দশমিক ছয় শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর নূর শামসিয়াহ মোহম্মদ ইউনুস বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক অনুমানে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েছে। অভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক চাহিদার ক্রমাগত সম্প্রসারণের মাধ্যমে ২০২২ সালের প্রবৃদ্ধি সহায়তা পাবে বলেও জানান তিনি।

মোহম্মদ ইউনুস বলেন, অর্থনীতিতে এখনও অনেক ঝুঁকি রয়েছে। বিশেষ করে ইউক্রেন-রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ, করোনা মোকাবিলায় চীনের কঠোর বিধিনিষেধ ও সরবরাহ সমস্যা রয়েছে। বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক সংকট বাড়লেও মালয়েশিয়ার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়ে আশাবাদ প্রকাশ করেন তিনি। মালয়েশিয়ায় মন্দার কোনো আশঙ্কা নেই বলেও আশ্বস্ত করেন ইউনুস।

তাছাড়া দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক ২০২২ সালের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস পাঁচ দশমিক তিন শতাংশ থেকে ছয় দশমিক তিন শতাংশের মধ্যে রেখেছে। কভিড মহামারিতে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি দেখেছে মালয়েশিয়া। কিন্তু এরই মধ্যে করোনার প্রায় সব বিধিনিষেধ উঠিয়ে দিয়েছে দেশটি। কমে গেছে করোনা শনাক্তের হারও। বাড়ানো হয়েছে ভ্যাকসিন কার্যক্রম।