বিশ্ব সংবাদ

মিয়ানমারে গণমৃত্যুর আশঙ্কা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: মিয়ানমারে সামরিক বাহিনীর অভিযানের কারণে দেশটির কায়াহ প্রদেশে ‘গণমৃত্যু’ হতে পারে বলে আশঙ্কা জানিয়েছে জাতিসংঘ। গতকাল বুধবার দেশটির দায়িত্বে থাকা জাতিসংঘের বিশেষ দূত টম অ্যান্ড্র–জ এক বিবৃতিতে এ শঙ্কার কথা জানান। আল-জাজিরা।

বিবৃতিতে অ্যান্ড্র–জ জানান, গত ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লেইংয়ের নেতৃত্বে সেনাবাহিনী দেশের ক্ষমতা দখল করে। এর পর থেকে দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ কায়াহতে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘাত শুরু হয় ওই প্রদেশের স্বাধিকারের দাবিতে আন্দোলনরত সশস্ত্র গোষ্ঠী কারেন্নি পিপলস ডিফেন্স ফোর্সের (কেপিডিএফ)।

দুপক্ষের সংঘর্ষ, গোলাগুলি, বিমান হামলা ও গোলা থেকে বাঁচতে বাড়িঘর ছেড়ে বনে-জঙ্গলে আশ্রয় নিয়েছেন কায়াহ প্রদেশের এক লাখেরও বেশি মানুষ। বিবৃতিতে তিনি বলেন, খাদ্য, চিকিৎসা ও আশ্রয়ের অভাবে এ বাস্তুচ্যুতরা এখন গণমৃত্যুর ঝুঁকিতে আছেন। শিগগির কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে মৃত্যুর মিছিল শুরু হবে সেখানে।

তিনি বলেন, যদি দ্রুত কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হয়, তাহলে খাদ্য ও পানির অভাব, প্রয়োজনীয় ওষুধ ও আশ্রয়ের অভাবে কায়াহ প্রদেশের বাস্তুচ্যুতদের মধ্যে ব্যাপক মাত্রায় গণমৃত্যু দেখা দেবে। এটি এমন মাত্রায় দেখা দেবে, যা এখন এখানে বসে থেকে আমরা কল্পনাও করতে পারব না। এর চেয়ে ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয়কর পরিস্থিতি মিয়ানমারে আগে দেখা যায়নি।’ 

আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যান বলছে, এ পর্যন্ত মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে মৃত্যুবরণ করেছেন অন্তত ৮৫০ বিক্ষোভকারী, আহত হয়েছেন হাজারেরও বেশি মানুষ। এছাড়া কারা অন্তরীণ আছেন প্রায় ছয় হাজার মানুষ।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..