প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

মুনাফা তুলে নেওয়ায় লেনদেন বৃদ্ধি

রুবাইয়াত রিক্তা : মুনাফা তুলে নেওয়ার প্রবণতায় গতকাল পুঁজিবাজারে সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ এবং লভ্যাংশ ঘোষণাকে কেন্দ্র করে জুন মাসের মাঝামাঝি থেকে বাজার ঊর্ধ্বমুখী হতে শুরু করে। ১২ জুন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩৭০ কোটি টাকা। ধীরে ধীরে লেনদেন বেড়ে ১১ জুলাই ১৩শ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায়। এরপর হাজার কোটি টাকার আশেপাশেই থাকে লেনদেন। ১৬ জুলাই ডিএসইর প্রধান সূচক পাঁচ হাজার ৮৪৪ পয়েন্টে পৌঁছায়। গত তিন কার্যদিবস ধরে সূচক ও লেনদেনে সংশোধন হচ্ছে। কারণ গত এক মাসে সবগুলো খাতের শেয়ারের মূল্যবৃদ্ধি হয়। যারা কম দামে এসব শেয়ার কিনেছিলেন তারা এখন মুনাফা তুলে নিচ্ছেন। আর দর বেড়ে যাওয়ায় নতুন করে আর এসব শেয়ারে বিনিয়োগ হচ্ছে না। বিনিয়োগকারীরা অপেক্ষা করছেন দর কমার। গতকাল গুরুত্বপূর্ণ প্রায় সব খাতের দর সংশোধন হয়। বিশেষ করে ব্যাংক খাতে ৩০টি কোম্পানির মধ্যে মাত্র দুটির দর বাড়ে। এ দুটি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে মার্কেন্টাইল ব্যাংক ও ডাচ্-বাংলা ব্যাংক। বস্ত্রসহ অন্যান্য খাতেও অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। ব্যতিক্রম ছিল মিউচুয়াল ফান্ড খাত। এ খাতের তিন প্রতিষ্ঠান দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় উঠে আসে। এ ছাড়া ৩৫টি ফান্ডের মধ্যে ১৭টির দর বেড়েছে, ১০টির কমেছে এবং অপরিবর্তিত ছিল আটটির। আগের দিনের ধারাবাহিকতায় গতকাল সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয় প্রকৌশল খাতে। এ খাতে লেনদেন হয় ১৫৩ কোটি টাকা। এরপর জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে ১৪৯ কোটি, ব্যাংক খাতে ১৩৩ কোটি টাকা। সবচেয়ে ভালো অবস্থানে ছিল সিরামিক ও যোগাযোগ খাত। সিরামিক খাতের দুই কোম্পানি মন্নু ও আরএকে সিরামিক দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশে চলে আসে। অন্যদিকে যোগাযোগ খাতের দুই কোম্পানির মধ্যে জিপির দর ছয় টাকা ও সাবমেরিন ক্যাবলসের দর এক টাকা বেড়েছে। লেনদেনে নেতৃত্ব দেওয়া ডরিন পাওয়ার ৪৪ কোটি টাকা, ইফাদ অটোস ৪৩ কোটি  টাকা, আরএকে সিরামিক ৩৮ কোটি টাকা, শাহজীবাজার পাওয়ার ৩৩ কোটি টাকা, ইউনিক হোটেল ও রিসোর্টের ৩০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দরবৃদ্ধির শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো সাভার রিফ্রাক্টরিজ, জুট স্পিনার্স, মন্নু সিরামিক, প্রাইম ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স। এর মধ্যে শীর্ষ তিনটি দুর্বল মৌলভিত্তির। জেড ক্যাটাগরির সাভার রিফ্রাক্টরিজের দর ৯.২৪ শতাংশ ও বি ক্যাটাগরির মন্নু সিরামিকের দর ৫.৮৫ শতাংশ বেড়েছে। সম্প্রতি টানা দরবৃদ্ধির প্রেক্ষিতে ডিএসই গত মঙ্গলবার জুট স্পিনার্স কোম্পানিকে কারণ দর্শানোর চিঠি পাঠায়। তা সত্ত্বেও গতকাল শেয়ারটির দর বেড়েছে ৮.৫৭ শতাংশ।