স্পোর্টস

মুশফিকের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান বিসিবির

ক্রীড়া প্রতিবেদক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রভাবে গত মার্চ থেকেই বন্ধ দেশের ক্রিকেট। তবে ধীরে ধীরে ক্রিকেটারদের ফের চেনা পরিবেশ ফিরিয়ে দিতে চেষ্টা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কিন্তু দেশের করোনা পরিস্থিতির এখনও তেমন উন্নতি না হওয়ায় তাই ঝুঁকি নিতে পারছে না বিসিবি। ঠিক এ অবস্থায় মুশফিকুর রহিম দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থার কাছে আবেদন করেছিলেন মিরপুর স্টেডিয়ামে একা অনুশীলনের। কিন্তু তার সেই প্রস্তাবে বিসিবি বলেছে না। তবে বোর্ডের পরিকল্পনা, জীবাণুমুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করার পর সবাইকে অনুশীলনে নিয়ে আসা।

ক্রিকেটারদের নিয়ে কোনো রকম ঝুঁকি নিতে চায় না বিসিবি। এ জন্য মুশফিকের প্রস্তাব গ্রহণ করতে পারেনি সংস্থাটি। এ ব্যাপার দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘মুশফিক আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। সে এককভাবে অনুশীলন করতে চায়। তবে আমরা তাকে বলেছি যে অনুশীলনের জন্য এখন উপযুক্ত সময় নয়, ঘরেই তার অনুশীলন করা উচিত। অনুশীলন গুরুত্বপূর্ণ, তবে আমাদের কাছে খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

তিনি আরও বলেন, ‘অল্প-সংখ্যক ক্রিকেটার এককভাবে অনুশীলনের জন্য জানিয়েছিল। তবে সবার জন্য আমাদের বার্তা ছিল একই। আমরা আমাদের সুবিধামতো জীবাণুমুক্ত করার জন্য কাজ করছি। তবে এই কাজটি এখনও শেষ হয়নি।’

করোনাভীতির পরও অনেক দেশই ক্রিকেটে ফেরার চেষ্টা করছে। এরইমধ্যে অস্ট্রেলিয়া ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটাররা অনুশীলনও শুরু করেছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও এ পথে হাঁটতে চাই। কিন্তু দেশের করোনা পরিস্থিতি ভালো না হওয়ায় এখনও ঝুঁকি নিতে পারছে না সংস্থাটি। এ ব্যাপারে বোর্ডের সিইও বলেন, ‘আমাদের সব বিষয় নিয়ে বিবেচনা করা প্রয়োজন। অনেক দেশ ইতোমধ্যে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে। নিঃসন্দেহে আমরাও তাই করব। যাই হোক, এই মুহূর্তে আমরা নির্দিষ্ট সময় দিতে পারছি না। ঈদের পর থেকে অনুশীলনের জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র জীবাণুমুক্ত করতে আমরা কাজ করছি এবং এটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এই কাজ শেষ হওয়ার পর আমরা বলতে পারি, আমরা আবার ক্রিকেটের অনুশীলনের জন্য প্রস্তুত। ধীরে ধীরে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় গত মার্চের মাঝামাঝি সময়ে হঠাৎ করেই বাংলাদেশের ক্রিকেট বন্ধ হয়ে যায়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..