প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

যথাযোগ্য মর্যাদায় সারাদেশে জাতীয় শোক দিবস পালিত

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যথাযোগ্য মর্যাদায় গতকাল সোমবার সারাদেশে জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

গতকাল সকালে ঝিনাইদহ শহরের বিভিন্ন স্থান বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শোকর‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘরে প্রেরণা একাত্তর চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে প্রেরণা একাত্তর চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্প অর্পণ করা হয়। প্রথমে রাষ্ট্রের পক্ষে জেলা প্রশাসন, পরে পুলিশ সুপার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

একে একে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়। এতে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম, জেলা প্রশাসক মনিরা বেগম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা, বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

অপরদিকে সোমবার সকালে শহরের এইচএসএস সড়কের আহার রেস্টুরেন্টের সামনে আলোচনা সভার আয়োজন করে সদর থানা যুবলীগ ও জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগ। এতে ঝিনাইদহ-২ আসনের সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী সমি, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জীবন কুমার বিশ্বাস, জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি আক্কাচ আলী, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রাজু আহম্মেদ, সদর থানা যুবলীগের আহ্বায়ক শাহ মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল রাজাসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন। আলোচনা সভা শেষে দোয়া মাহফিল ও গণভোজের আয়োজন করা হয়।

এদিকে চুয়াডাঙ্গায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। এ দিবসকে কেন্দ্র করে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সব সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ভবন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়। সকাল ৭টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান ও পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম।

এরপর সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ সর্বস্তরের জনগণ শ্রদ্ধা নিবেদন করে। সকাল সাড়ে ১০টায় ডিসি সাহিত্য মঞ্চে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও আদর্শের ওপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বেলা সাড়ে ১১টায় একই স্থানে সংগীত, আবৃত্তি, রচনা, চিত্রাঙ্কন ও কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মুক্তমঞ্চে, রেলস্টেশন, শহীদ হাসান চত্বরসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধুর ওপর ‘চিরঞ্জীব বঙ্গবন্ধু প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন ও ৭ মার্চের ভাষণ’ প্রচার করা হয়। বেলা সাড়ে ১২টায় ভাবগাম্ভীর্য বজায় রেখে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া জেলাব্যাপী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আলোচনা সভা, জাতীয় শোক দিবসের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ কবিতা পাঠ, বড়দের জন্য বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী পাঠ, রচনা ও চিত্রাঙ্কন, হামদ ও নাথ প্রতিযোগিতা এবং দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বাদ জোহর জেলার সব মসজিদে দোয়া ও মন্দির, গির্জা ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সুবিধামতো সময়ে প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে সকাল সাড়ে ৬টায় আওয়ামী লীগের জেলা কার্যালয়ের সামনে পতাকা উত্তোলন ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার। এ সময় দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, সংগঠনিক সম্পাদক মুন্সী আলমগীর হান্নান ও মাসুদুজ্জামান লিটু, নির্বাহী সদস্য বেলাল হোসেন ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন হেলা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল, ময়নসিংহ, জামালপুর, শেরপুর, যশোর, খুলনা, বাগেরহাট, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, ফেনীসহ সারাদেশের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি পালিত হয়েছে।