Print Date & Time : 30 July 2021 Friday 10:57 pm

যবিপ্রবির প্রথম পিএইচডি ডিগ্রিদান

প্রকাশ: May 10, 2021 সময়- 12:29 am

মীর কামরুজ্জামান মনি, যশোর: যশোর বি“ান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) থেকে সর্বপ্রথম একজন বিদেশি শিক্ষার্থীকে পিএইচডি ও আরেক জন শিক্ষার্থীকে এমফিল ডিগ্রি অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী ফোরাম রিজেন্ট বোর্ড।

গতকাল রোববার দুপুরে যবিপ্রবি প্রশাসনিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে রিজেন্ট বোর্ডের ৬৭তম সভায় তাদের এ ডিগ্রির অনুমোদন দেয়া হয়। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলে তাদের ডিগ্রির অনুমোদন দেয়া হয়। বৈশ্বিক মহামারির কারণে সদস্যদের অনেকে জুম অ্যাপে ও অনেকে সশরীরে রিজেন্ট বোর্ডের সভায় অংশ নেন।

যবিপ্রবি উপাচার্য ও রিজেন্ট বোর্ডের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, এ রিজেন্ট বোর্ডটি যবিপ্রবির জন্য একটি ইতিহাস সৃষ্টির মাইলফলক হয়ে থাকবে। কারণ প্রথমবারের মতো একজন বিদেশি শিক্ষার্থীকে পিএইচডি এবং একজন সামরিক কর্মকর্তাকে এ বিশ্ববিদ্যালয় এমফিল ডিগ্রি অনুমোদন দিয়েছে। এ জন্য তিনি দুজন শিক্ষার্থী এবং তাদের সুপারভাইজারদের আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃত“তা জানান।

রিজেন্ট বোর্ড সভার শুরুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বশেষ পরিস্থিতি তুলে ধরেন যবিপ্রবি উপাচার্য। তিনি বলেন, যবিপ্রবি মাত্র ৩৫ একর আয়তনের একটি বিদ্যাপীঠ। এখানে শিক্ষা কার্যক্রম আরম্ভ হয় ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষে। ছোট্ট আয়তন আর বয়সে নবীন হলেও এ বিশ্ববিদ্যালয়টি শিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে অনন্য অগ্রগতি অর্জন করেছে। নানা বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে সেশনজট মুক্ত শিক্ষাব্যবস্থা নিøিত করেছে। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের গবেষণা ও উদ্ভাবনে উৎসাহ দিচ্ছে। কভিডকালে দেশের প্রথম পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে কভিড পরীক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা রাখা করাসহ শিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে যবিপ্রবি এখন বাংলাদেশের এক অনুকরণীয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

তিনি জানান, ২০১৭ সালের ২০ মে তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব নিই। সে হিসেবে আগামী ১৯ মে তার দায়িত্ব শেষ হতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, বিগত চার বছরে এ পথচলায় আপনারা যেভাবে আমাকে সাহায্য-সহযোগিতা করেছেন, তার জন্য আপনাদের প্রতি বিশেষ কৃত“তা ও ধন্যবাদ “াপন করছি। এ সময় সফলভাবে দায়িত্ব পালন করায় রিজেন্ট বোর্ডের অন্যান্য সদস্যরাও তাকে ধন্যবাদ জানান।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত রিজেন্ট বোর্ডের সভায় যবিপ্রবির কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. আবদুল মজিদ, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিশ্ববিদ্যালয়) একেএম আফতাব হোসেন প্রামাণিক, যুগ্ম সচিব (উন্নয়ন-৩) সৈয়দা নওয়ারা জাহান উপস্থিত ছিলেন। আরও ছিলেন সাভারের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজির মহাপরিচালক ড. মো. সলিমুক্সøাহ, যশোরের আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মুখ্য বৈ“ানিক কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ড. কাওছার উদ্দিন আহম্মদ, বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম শাহি আলম।

সভায় জাহাঙ্গীর বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবির, ইব্রাহিম কার্ডিয়াক হসপিটাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিউটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. এমএ রশীদ, যবিপ্রবির ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আনিছুর রহমান, কেমিকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. বিপ্লব কুমার বিশ্বাস ও অণুজীববি“ান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. ইকবাল কবীর জাহিদ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতির সভাপতি শেখ কবির হোসেন, সরকারি এমএম কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. আবদুল মজিদ, সরকারি সিটি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আশরাফ-উদ-দৌলা, রিজেন্ট বোর্ডের সচিব ও যবিপ্রবির রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. আহসান হাবীব প্রমুখ সভায় অংশ নেন।