বাণিজ্য সংবাদ শিল্প-বাণিজ্য

যশোরের পেঁয়াজের দাম বেড়ে কেজি ৮০ টাকা

প্রতিনিধি, যশোর:যশোরের বাজারে বেড়েই চলেছে পেঁয়াজের দাম। কেজিপ্রতি পেঁয়াজের দাম আরও ১০ টাকা বেড়ে এখন বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়। আর ভারতীয় পেঁয়াজ ৭০ টাকায়। গত ১৩ সেপ্টেম্বর ভারত পেঁয়াজের রফতানি মূল্য বাড়ানোর ঘোষণার পর দেশে ৪৫ টাকার পেঁয়াজ এক লাফে ৭০ টাকায় ওঠে। যশোরের ব্যবসায়ীদের আশঙ্কা শিগগিরই পেঁয়াজের দাম ১০০ টাকা কেজিতে উঠতে পারে।
যশোরের বড় বাজার ঘুরে জানা যায়, গত ১৭ সেপ্টেম্বর যশোরে ক্রস পেঁয়াজের দাম তিন দিনের ব্যবধানে ৪৫ টাকা থেকে কেজিতে ২৫ টাকা বেড়ে হয়েছিল ৭০ টাকা। এরপর গতকাল যশোরের বড় বাজারে ক্রস পেঁয়াজ কেজিপ্রতি বিক্রি হয়েছে ৮০ টাকা। আর আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৬৫ থেকে ৭০ টাকায়।
সূত্র জানায়, বাংলাদেশে ভারতীয় পেঁয়াজের রফতানি মূল্য ছিল প্রতি টন ২৬৫ থেকে ৩০০ ডলার। সম্প্রতি ভারতে বন্যায় পেঁয়াজের ফলন ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় স্থানীয় বাজারে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পায়। এ কারণে গত দু’মাস থেকে ভারত বাংলাদেশে রফতানি মূল্য বাড়িয়ে প্রতি টন ৩৫০ থেকে ৪০০ ডলার নির্ধারণ করে। কিন্তু সম্প্রতি সেখানকার বিভিন্ন অঞ্চলে কেজি প্রতি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫০-৫২ রুপিতে।
এ প্রসঙ্গে সাতক্ষীরার পেঁয়াজ আমদানিকারক আবু জাফর জানান, ভারতীয় কাঁচা পণ্যের মূল্য নির্ধারণ সংস্থা ‘ন্যাপিড’ গত ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে বাংলদেশে পেঁয়াজের রফতানি মূল্য করেছে প্রতি টন ৮৫০ ডলার।
যশোরের ব্যবসায়ীরা বলছেন, ভারত পেঁয়াজের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশের মজুদদাররা এর সুযোগটা পুরোপুরি লুফে নিয়েছে। দেশে বড় ব্যবসায়ীদের গুদামে ও কৃষকের মাচায় এখনও ক্রস পেঁয়াজের প্রচুর মজুদ আছে। তা সত্ত্বেও দেশীয় মজুদদাররা গত চার-পাঁচ দিনে প্রতি কেজিতে ২৫ থেকে ৩০ টাকা মুনাফা লুটে নিয়েছে।
যশোরের বড় বাজারের ‘নিতাই গৌর ভাণ্ডার’ এর স্বত্বাধিকারী বাগান চন্দ্র সাহা এ জানান, তিনি আশঙ্কা করছেন সপ্তাহ খানেকের মধ্যে হয়ত ক্রস পেঁয়াজের দাম ১০০ টাকায় উঠে যাবে। তিনি গতকাল তার আড়তে ক্রস পেঁয়াজ পাইকারি প্রতি কেজি বিক্রি করেছেন ৭০ থেকে ৭৫ টাকায় আর ভারতীয় আমদানি করা পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন ৬৫ টাকায়।
গতকাল বড় বাজারে খুচরা দোকানি জয়দেব দাস প্রতি কেজি ক্রস পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন ৮০ টাকা আর ভারতীয় আমদানি করা পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন ৭০ টাকায়। তিনি জানান আড়ত থেকে বেশি দামে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে, পেঁয়াজের দাম বাড়তে থাকায় আগের থেকে অনেক ক্রেতা কমে গেছে।
যশোর বড় বাজারের ব্যবসায়ীরা বলছেন বাংলাদেশে পেঁয়াজের বাজার স্থিতিশীল রাখতে হলে সরকারকে এখনই অন্যান্য দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানির ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যথায় ভারতীয় পেঁয়াজের নতুন রফতানি মূল্যে আমদানি করতে হলে আমদানিকারকদের প্রতি কেজি ক্রয় মূল্য পড়বে অন্যান্য খরচ বাদে ৭২ টাকা।

সর্বশেষ..