সারা বাংলা

যশোরে পৃথক ঘটনায় চারজনের মৃত্যু

প্রতিনিধি, যশোর: যশোরে গতকাল বৃহস্পতিবার পৃথক ঘটনায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে আনসার সদস্য মকদুম আলী নিজ অস্ত্রের গুলিতে আত্মহত্যা, কারাগারে কয়েদি মোহাম্মদ ইকবাল শেখের মৃত্যু, কৃষক মিনারুল মোল্লা খুন ও ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধা রিজিয়া বেগমের মৃত্যু হয়েছে।
আনসার সদস্যের আত্মহত্যা : যশোর সদর উপজেলার বসুন্দিয়া পুলিশ ক্যাম্পে নিজের অস্ত্রের গুলিতে এক আনসার সদস্য আত্মহত্যা করেছেন। তার নাম মকদুম আলী (৫১)। গতকাল বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজ শেষ করে ক্যাম্পের ভেতরে তিনি আত্মহত্যা করেন।
মকদুম আলী টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার বিলঅমুলা গ্রামের বাসিন্দা। দেড় মাস আগে তিনি বসুন্দিয়া ক্যাম্পে যোগদান করেন।
যশোরের পুলিশ সুপার মঈনুল হক জানান, মকদুম আলী দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক কলহে অশান্তিতে ছিলেন। প্রায়ই ফোনে তিনি পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঝগড়া করতেন। গতকাল ভোরে ফজরের নামাজ শেষে ক্যাম্পে ফিরে নিজের অস্ত্র থুতনিতে ঠেকিয়ে গুলি করে আত্মহত্যা করেন।
খবর পেয়ে তিনি পুলিশ কর্মকর্তাদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এছাড়া যশোর আনসার ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি জানান, লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
কারাগারে কয়েদির মৃত্যু: যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে মোহাম্মদ ইকবাল শেখ (৪২) নামে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত এক কয়েদির (এ/১৫২২) মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকাল পৌনে ১১টার দিকে কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে হাসপাতালে আনার সময় তার মৃত্যু হয়। ইকবাল শেখ বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার পাগলা শ্যামনগর গ্রামের আবদুল খালেক শেখের ছেলে। তিনি একটি হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ছিলেন। ২০১৪ সালের ৩ ডিসেম্বর উচ্চ আদালত থেকে মৃত্যুদণ্ড সংশোধিত হয়ে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ হয়।
যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার আবু তালেব বলেন, ‘২০০৯ সালের ১৯ মার্চ ইকবাল শেখ একটি হত্যা মামলায় ফাঁসির রায় নিয়ে বাগেরহাট কারাগারে আসেন। সেখান থেকে ২০১৭ সালের ১২ মার্চ যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে আসেন। গতকাল সকালে কারা অভ্যন্তরে কেস টেবিলের সামনে তিনি দাঁড়িয়ে ছিলেন। এ সময় হঠাৎ মাথা ঘুরে পড়ে যান। তাৎক্ষণিক কারা হাসপাতালে তার ইসিজি করা হয়। অবস্থা খারাপ হওয়ায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক অমিয় দাস বলেন, ধারণা করা হচ্ছে হার্ট অ্যাটাকের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়।
কৃষক খুন: যশোর সদর উপজেলার সালতা গ্রামে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের হামলায় মিনারুল মোল্লা নামে এক কৃষক নিহত হন। গত বুধবার রাত ১১টার দিকে নিজ বাড়ির পাশেই তিনি হামলার শিকার হন। চিকিৎসাধীন
অবস্থায় গতকাল সকালে যশোর জেনারেল হাসপাতালে তিনি মারা যান। মিনারুল মোল্লা ওই গ্রামের মৃত সদর মোল্লার ছেলে।
যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, বুধবার রাত ১১টার দিকে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পান মিনারুলকে তার বাড়ির পাশে মাঠে কে বা কারা কুপিয়ে জখম করে ফেলে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তিনি মারা যান।
ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু: যশোরে ট্রেনে কাটা পড়ে রিজিয়া বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধা নিহত হন। তিনি ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে নিচে পড়ে এ ঘটনার শিকার হন। গতকাল ভোরে যশোর রেলস্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। রিজিয়া বেগম টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতী উপজেলার সাতিহাটি গ্রামের হাজী তোফাজ্জেল হোসেনের স্ত্রী। নিহতের জামাতা রুস্তম আলী জানান, শাশুড়িসহ তিনি, তার স্ত্রী ও সন্তান যশোরের শার্শা উপজেলার নাভারনে যাওয়ার জন্য বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে যশোর রেলস্টেশনে এসে পৌঁছান। এ সময় ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে তার শাশুড়ি পা পিছলে নিচে
পড়ে যান। একই সময় ট্রেনও চলতে শুরু করে। এতে দুই পা কেটে ও মাথায় আঘাত পেয়ে তিনি গুরুতর জখম হন। দ্রুত যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
জরুরি বিভাগের চিকিৎসক অমিয় দাস বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়।

সর্বশেষ..