আজকের পত্রিকা দিনের খবর প্রথম পাতা সর্বশেষ সংবাদ সারা বাংলা

যশোর ভ্যাট-ঢাকা বন্ডে প্রথম জীবাণুনাশক গেইট

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ৮ মার্চ। করোনার বিস্তার রোধে ২৬ মার্চ থেকে সারা দেশে সাধারণ ছুটি চলছে। ৩০ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বর্ধিত করা হয়েছে। তবে ছুটির মধ্যেই সরকারি অফিস সীমিত আকারে খোলা রাখার নির্দেশ দেয় সরকার। প্রয়োজনীয় অফিস খোলা রাখতে গিয়ে যেন করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য ১৩ দফা নির্দেশনা দেয় স্বাস্থ্য বিভাগ। এর মধ্যে প্রথম হলো ‘প্রয়োজনীয়সংখ্যক জীবাণুমুক্তকরণ টানেল স্থাপন’ স্থাপন।

ভ্যাট সেবা প্রদান ও রাজস্ব আহরণের জন্য করোনা দূযোর্গের মধ্যেও খোলা রয়েছে দেশের সব ভ্যাট কমিশনারেট ও কাস্টমস হাউস। সেবা প্রত্যাশীদের মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ রোধে ভ্যাট কমিশনারেটের মধ্যে প্রথমবার যশোর কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট প্রথমবার জীবাণুনাশক টানেল স্থাপন করেছে। প্রধান কার্যালয়সহ বিভাগীয় কার্যালয়, সার্কেল অফিস ও একমাত্র শুল্ক স্টেশন দর্শনায় টানেল স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। অপরদিকে, ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটে প্রথমবারের মতো জীবাণুনাশক কক্ষ স্থাপন করা হয়েছে।

## স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ১৩টি নির্দেশনার প্রথম নির্দেশনায় টানেল বসাতে বলেছে

## এলটিইউসহ ১২টি কমিশনারেটের মধ্যে প্রথম টানেল যশোর ভ্যাটে

## ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটে স্থাপন করা হয়েছে জীবাণুনাশক কক্ষ

যশোর ভ্যাট কমিশনারেট সূত্র জানায়, সাধারণ ছুটির প্রথম থেকেই ভ্যাট অফিস বন্ধ হয়ে যায়। পরে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে নির্দেশে ২৮ এপ্রিল সীমিত আকারে ভ্যাট অফিস খোলা রাখার নির্দেশনা দেয় এনবিআর। করোনার ঝুঁকি নিয়ে মূলত ভ্যাট সেবা দিয়ে আসছে। তবে ৫ মে স্বাভাবিক দাপ্তরিক কার্যক্রম চালানোর নির্দেশ দেয় এনবিআর। তবে সাধারণ ছুটির মধ্যে অফিস খোলা রাখার বিষয়ে ১১ মে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ে ১৩ দফা নির্দেশনা দেয় স্বাস্থ্য বিভাগ। যার প্রথমেই রয়েছে ‘প্রয়োজনীয় সংখ্যক জীবাণুনাশক টানেল স্থাপন’।

সূত্র আরো জানায়, এ নির্দেশনা অনুসরণ করে সংক্রমণ রোধে এলটিইউ ও ১১টি ভ্যাট কমিশনারেটের মধ্যে প্রথমবার জীবাণুনাশক টানেল স্থাপন করেছে যশোর ভ্যাট কমিশনারেট। বুধবার (১৯ মে) প্রাথমিকভাবে কমিশনারেট সদর দপ্তর, যশোর বিভাগ ও যশোর সার্কেল-১,২-এ দুইটি গেইট চালু হলো। এ কমিশনারেটের আওতাধীন ১০টি বিভাগীয় কার্যালয়, ২০টি সার্কেল ও দর্শনা শুল্ক স্টেশন রয়েছে।

অনেক বিভাগীয় কার্যালয়ের সাথে সার্কেল অফিস রয়েছে। সেক্ষেত্রে কিছু বিভাগীয় কার‌্যালয় ও সার্কেল অফিসে এক সাথে টানেল স্থাপন করা হবে। এছাড়া এ কমিশনারেটের আওতাধীন একমাত্র দর্শনা শুল্ক স্টেশনে দুইটি টানেল গেইটসহ মোট ১৭টি টানেল গেইট স্থাপন করা হবে। ইতোমধ্যে ‍দুইটি স্থাপন হয়েছে। বাকি ১৫টি গেইটের কাজ চলমান রয়েছে। ঈদের পরপরই সব গেইটের কাজ শেষ হবে।

সূত্র জানায়, এসব টানেলে প্রতিটি অফিসে প্রবেশের মুখে থাকবে। ৫ সেকেন্ড অবস্থান করলে অটো জীবাণুনাশক শরীরে পড়ে জীবাণুমুক্ত করবে। এছাড়া টানেলের মধ্যে প্লাস্টিকের ম্যাট দেওয়া আছে। ওষধ এসব ম্যাটে পড়ে। সেজন্য সেবা প্রার্থীরা টানেলে অবস্থান করার সময় জুতা জীবাণুমুক্ত হয়ে যাবে। ফলে করোনার ঝুঁকি থাকবে না। সরকারি তহবিল থেকে খুবই কম খরচে এসব টানেল স্থাপন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে যশোর ভ্যাট কমিশনার মো. জাকির হোসেন শেয়ার বিজকে বলেন, প্রতিদিন করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। আমাদের কাছে কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং করদাতা সবার নিরাপত্তা অত্যন্ত জরুরী। এ কমিশনারেট এ বিষয়ে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। আর স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী জীবাণুনাশক টানেল স্থাপন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দুইটি টানেল স্থাপন করা হয়েছে, বাকি ১৫টি ঈদের পর কাজ শেষ হবে। নির্দেশনা মতে সদর দপ্তর, বিভাগীয় কার্যালয়, সার্কেলে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সেবা দেয়া হচ্ছে।

ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের একজন কর্মকর্তা শেয়ার বিজকে বলেন, কমিশনারেটের প্রবেশমুখেই এ কক্ষ বসানো হয়েছে। করদাতা ও সেবা প্রার্থীরা এ কক্ষে প্রবেশ করে ৫ সেকেন্ড অবস্থান করলেই জীবাণুমুক্ত হয়ে যাবে। এছাড়া ভবনে প্রবেশে জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে। রয়েছে হাত ধোঁয়ার ব্যবস্থা। সেবা গ্রহীতাদের মুখে মাস্ক, হাতে গ্লাভস, মাথায় ও পায়ে ভাইরাস বিরোধী কাপড় পরতে হবে। সেবা গ্রহীতাদের জন্য জারি করা হয়েছে নির্দেশনা, যা প্রবেশমুখে টাঙানো রয়েছে। এছাড়া ভবনের সিঁড়িতে ব্লিচিং পাউডার ও জীবাণুনাশক ছিটানো হয়েছে। প্রতিটি কর্মকর্তার কক্ষে প্রবেশে স্প্রে করা ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে জীবাণুমক্ত করা হচ্ছে। তিনি বলেন, করোনা সংক্রমণ রোধে সেবা গ্রহীতারা নির্দেশনা মানছে কিনা তা মনিটরিং করা হয়।

###

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..