বিশ্ব সংবাদ

যুক্তরাজ্যজুড়ে গানস্যালুটে প্রিন্স ফিলিপের শেষ বিদায়

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ডিউক অব এডিনবার্গ প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে শোক নেমে আসে পুরো বিশ্বে। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিশ্বনেতারা। শোক জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁসহ বিশ্বনেতারা।  এদিকে গানস্যালুটের মাধ্যমে পুরো যুক্তরাজ্যজুড়ে ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ডিউক অব এডিনবার্গ প্রিন্স ফিলিপকে শেষ বিদায় জানানো হবে। স্পেনের দক্ষিণ উপকূলে যুক্তরাজ্যের অধীনে থাকা জিব্রালটার এবং সমুদ্রে থাকা বিভিন্ন যুদ্ধজাহাজ থেকেও তাকে সম্মান জানানো হবে। খবর: বিবিসি, রয়টার্স।

শুক্রবার ৯৯ বছর বয়সে প্রিন্স ফিলিপ মৃত্যুবরণ করেন। ৬০ বছরেরও বেশি সময় ব্রিটেনের রানির পার্শ্ব-সহচর ও একান্ত সমর্থক প্রিন্স ফিলিপ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ব্রিটিশ রাজ পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ একজন ব্যক্তিতে পরিণত হন।

রানির জীবন সঙ্গী হলেও ফিলিপের কোনো সাংবিধানিক দায়িত্ব ছিল না। কিন্তু রাজ পরিবারের এত ঘনিষ্ঠ ও গুরুত্বপূর্ণ তিনি ছাড়া আর কেউ ছিলেন না। তাদের ৭৩ বছরের দাম্পত্য জীবন পার করেছেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এবং তার স্বামী ফিলিপ। রানির আদেশেই ব্রিটিশ রাজতন্ত্রে একসময় তিনি হয়ে ওঠেন দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি।

জীবন সঙ্গী হিসেবে রানিকে তার কাজে সহযোগিতা করলেও বিশেষ কিছু কাজের ব্যাপারে প্রিন্স ফিলিপের বিশেষ আগ্রহ ছিল। পরিবেশ ও তরুণদের জন্য অনেক কাজ করেছেন তিনি। স্পষ্টভাষী হিসেবেও পরিচিতি ছিল প্রিন্স ফিলিপের। এ দীর্ঘ সময় ধরে রানি ও ব্রিটিশ রাজ পরিবারের প্রতি একনিষ্ঠ সমর্থন ও সহযোগিতার জন্যে তিনি যথেষ্ট শ্রদ্ধাও অর্জন করেন।

ব্রিটেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শনিবার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় লন্ডন, এডেনবার্গ, কার্ডিফ এবং বেলফাসহ ব্রিটেনের অন্যান্য ব্রিটিশ শহরে প্রতি মিনিটে একটি করে মোট ৪১টি গুলি ছোড়া হবে।

এছাড়া সাগরে এইচএমএস ডায়ামন্ড ও এইচএমএস মনট্রোজসহ রয়্যাল নেভির অন্যান্য জাহাজ থেকেও ডিউক অব এডিনবার্গের প্রতি সম্মান

জানিয়েছে গানস্যালুট দেয়া হবে। অনলাইন এবং টেলিভিশনেও তা সরাসরি প্রচার করা হবে বলে জানানো হয়েছে। ফলে লোকজন ঘরে বসেই সবকিছু দেখতে পারবেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..