প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

যুক্তরাষ্ট্রগামী যাত্রীদের তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদের নতুন নিয়ম

???????????????? ??????? ?????? ???????? ?????? ?? ???? ???????

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রগামী সব ফ্লাইটের যাত্রীদের তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদের নতুন নিয়ম কার্যকর হচ্ছে বৃহস্পতিবার থেকে। উড়োজাহাজে যাত্রীদের সঙ্গে গোপনে

বিস্ফোরক বহনের হুমকি ঠেকাতে ট্রাম্প প্রশাসন এ নতুন নির্দেশনা জারি করেছে, যার আওতায় থাকছেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরাও। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এয়ারলাইনসগুলো। খবর রয়টার্স।

নতুন নিয়মে যুক্তরাষ্ট্রগামী উড়োজাহাজে চড়ার আগেই চেক ইন পয়েন্ট অথবা বোর্ডিং গেটে যাত্রীদের ‘সংক্ষিপ্ত’ জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হবে। সেখানে তাদের সব ধরনের ‘ব্যাক-গ্রাউন্ড’ যাচাই করা হবে। সঙ্গে থাকা মালামাল তল্লাশিতেও থাকবে কড়াকড়ি।

যুক্তরাষ্ট্রের পরিবহন নিরাপত্তা প্রশাসনের (টিএসএ) মুখপাত্র লিসা ফার্বস্টাইন বুধবার বলেন, নিরাপত্তার এ বিধি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক, বিদেশি পর্যটক, ব্যবসায়ী, ক‚টনীতিক- সবার ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে। আর যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লাইট পরিচালনা করে এমন সব এয়ারলাইনসকেই নতুন এ নিয়ম মানতে হবে।

প্রতিদিন ১০৫টি দেশের ২৮০টি বিমানবন্দর থেকে ১৮০টি এয়ারলাইনসের যুক্তরাষ্ট্রগামী দুই হাজার ১০০ বাণিজ্যিক ফ্লাইটের তিন লাখ ২৫ হাজার যাত্রীকে এ নতুন নিয়মের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে।

এর আগে গত জুনে এক আদেশে মধ্যপ্রাচ্যের আটটি এবং ইউরোপের দুটি বিমানবন্দর থেকে যুক্তরাষ্ট্রগামী ফ্লাইটে যাত্রীদের হাতব্যাগে ল্যাপটপসহ বড় আকারের ইলেকট্রনিক ডিভাইস বহন নিষিদ্ধ করা হয়েছিল ১২০ দিনের জন্যে। সেই নিষেধাজ্ঞার জুলাইয়ে তুলে নেওয়ার সময়ই ট্রাম্প প্রশাসন জানিয়েছিল, সময়ে সময়ে প্রয়োজন অনুযায়ী আরও নতুন কড়াকড়ি আসতে পারে।

এর ধারাবাহিকতায় বুধবার আকস্মিক এক সার্কুলারে নতুন নিয়ম জারি করে বৃহস্পতিবার থেকেই তা কার্যকরের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এয়ারলাইনস ফর আমেরিকা নামের একটি সংগঠন বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র সরকারের এ নতুন নিয়মকে চিহ্নিত করেছে ‘জটিল প্রক্রিয়া’ হিসেবে।

ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের সিইও আলেক্সান্দ্রে ডি জুনিয়াক বলেছেন, মার্কিন কর্তৃপক্ষ এয়ারলাইনসগুলোর সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনা না করেই হঠাৎ যেভাবে এই আদেশ জারি করল, তা ‘খুবই অদ্ভুত’।