প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

যুক্তরাষ্ট্রে আর্থিক কষ্টে নিন্ম আয়ের পরিবারগুলো

শেয়ার বিজ ডেস্ক:যুক্তরাষ্ট্রের আদমশুমারির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির নিন্ম আয়ের পরিবারগুলো আরও আর্থিক চাপে পড়তে পারে, কারণ সরকার চাইল্ড ট্যাক্স ক্রেডিট (সিটিসি) পেমেন্ট বন্ধ করে দিচ্ছে। যদিও প্রেসিডেন্ট বাইডেন সমর্থিত এ কর্মসূচির মেয়াদ আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে। খবর: ইয়াহু ফাইন্যান্স।

আদমশুমারি সেনসাসের হাউসহোল্ড পালস জরিপের তথ্যে দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে মাঝে মাঝে বা প্রায়ই খাবার সংকটে ভুগছে এমন পরিবারের সংখ্যা গত ডিসেম্বরে বেড়ে ৯ দশমিক সাত শতাংশ হয়েছে, গত পাঁচ মাসের মধ্যে যা সর্বোচ্চ।

চাইল্ড ট্যাক্স ক্রেডিটের সর্বশেষ পেমেন্ট গত ১৫ জানুয়ারি সম্পন্ন হয়েছে। এর মেয়াদ আর বাড়ানো হবে না। মূলত বছরে এক লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের কম উপার্জনকারী দুই অভিভাবকের ট্যাক্স রিটার্নের অগ্রিম হিসেবে কাজ করে চাইল্ড ট্যাক্স। এ স্কিমের আওতায় যুক্তরাষ্ট্রের এসব পরিবারে ছয় বছরের নিচে একেকটি শিশু মাসিক ৩০০ ডলার পেয়ে থাকে সরকারের কাছ থেকে। অনূর্ধ্ব ১৭ বয়সী শিশুর জন্য ২৫০ ডলার বরাদ্দ রয়েছে। তবে এর বেশি অর্থ উপার্জনকারী পরিবারগুলোও সরকারের কাছ অর্থ সহায়তা পায়, যা তুলনামূলক কম। এ অর্থ সহায়তা স্থায়ী করা হলে দেশটিতে শৈশবকালীন দারিদ্র্য উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেতে পারে। অন্যথায় শৈশবকালীন দারিদ্র্য বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

চলতি মাসে এখনও সিটিসির অর্থ দেয়া হয়নি। এ কারণে প্রায় ৪০ লাখ শিশু দারিদ্র্য ঝুঁকিতে রয়েছে পূর্বাভাসে বলা হয়েছে। চলতি মাসে এ দারিদ্র্যের হার ১৭ শতাংশ বেড়েছে, গত মাসে যা ১২ শতাংশ ছিল। কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার অন পোভার্টি অ্যান্ড সোশ্যাল পলিসি অনুযায়ী, ২০২০ সালের ডিসেম্বরের পর এ হার সর্বোচ্চ।

এ পূর্বাভাসের অন্যতম কারণ, গত মাসের মাঝামাঝি তিন কোটি ৬০ লাখ পরিবার তাদের ষষ্ঠ ও সর্বশেষ মাসিক সিটিসির অর্থ পেয়েছে এবং এরপর এ বরাদ্দ আর বাড়বে কি নাÑতা নিয়ে অনিশ্চতয়তা রয়েছে।

সিটিসির বরাদ্দের কল্যাণে গত ডিসেম্বরে প্রায় ৩০ শতাংশ শিশুকে দরিদ্রতা থেকে মুক্তি পেয়েছে, আর ৩৭ লাখ শিশু দারিদ্র্য ঝুঁকি থেকে রক্ষা পেয়েছে। এতে প্রায় এক লাখ ৬৩ হাজার এশিয়ার, সাত লাখ ৩৭ হাজার কৃষ্ণাঙ্গ, ১৪ লাখ ল্যাটিন আমেরিকার ও ১৪ লাখ শেতাঙ্গ শিশু রয়েছে।

আমেরিকান রেসকিউ পরিকল্পনার অংশ হিসাবে গত বছর মার্চে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বর্ধিত সিটিসি আইনে স্বাক্ষর করেন। বাইডেন প্রশাসন এ প্রোগ্রামের প্রসার করেছে। ২০০০ ডলার থেকে বাড়িয়ে অর্থের পরিমাণ তিন হাজার ৬০০ ডলার করা হয়েছে। বর্ধিত চাইল্ড ট্যাক্স ক্রেডিট যোগ্য পরিবারগুলোকে জুলাই থেকে ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত মাসিক অগ্রিম নগদ অর্থ দেয়ার বিকল্প হয়ে দেখা দেয়। এ সময় দেয়ার পর যে অর্থ প্রাপ্তি বাকি থাকে তা ২০২১ সালের ট্যাক্স রিটার্নে দেখানোর সুযোগ রাখা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এ ঘটনাকে অন্যতম দারিদ্র্যবিরোধী পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এ কর্মসূচি লাখো পরিবারকে তাদের সন্তানসহ অতি দারিদ্র্য অবস্থা থেকে মুক্তি দিয়েছে। কভিড-১৯ মহামারিতে এই সিটিসি আশীর্বাদ হয়ে আসে পরিবারগুলোর কাছে। নি¤œ আয়ের মানুষরা তখন খাদ্যের সংকট থেকে মুক্তি পায় এবং মৌলিক চাহিদা পূরণে সচেষ্ট হয় তারা। একই সঙ্গে বেকারত্ব থেকে মুক্তি দেয় অনেক মানুষকে।

কংগ্রেস সিটিসি প্রোগ্রামের মেয়াদ বাড়াতে ব্যর্থ হয়েছে। আরও এক বছর বাড়ানোর পরিকল্পনা ছিল ডেমোক্র্যাটদের। এজন্য তারা প্রেসিডেন্টের দ্বারস্থ হন কিন্তু অনেক আইনপ্রণেতা এর বিরোধিতা করে বলেন, দারিদ্র্য দূর করার জন্য অর্থ সহায়তার পরিবর্তে কর্মসংস্থানের ওপর গুরুত্ব দেয়া হোক।