বিশ্ব সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে বেকারের সংখ্যা বাড়ছেই

শেয়ার বিজ ডেস্ক : কভিড-১৯ মহামারিতে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বড় ভুক্তভোগী যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে আক্রান্ত-মৃতের সংখ্যা অন্য যে কোনো অঞ্চলের তুলনায় সর্বোচ্চ। পাশাপাশি বিশ্বের সবচেয়ে বড় এ অর্থনীতিতেও করোনার প্রভাব পড়ছে। মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রে যত লোক বেকার হতে পারেন বলে ধারণা করছিলেন বিশেষজ্ঞরা, বাস্তবে কর্মহীন লোকের সংখ্যা বাড়ছে তার চেয়েও দ্রুতগতিতে। খবর: বিবিসি।

যুক্তরাষ্ট্রের শ্রম বিভাগের প্রতিবেদন অনুসারে, দেশটিতে গত ২১ তারিখ শেষ হওয়া সপ্তাহে কাজ হারিয়ে সরকারের কাছে বেকারত্ব সুবিধার জন্য আবেদন করেছেন অন্তত সাত লাখ ৭৮ হাজার মানুষ, যা অর্থনীতিবিদদের ধারণার চেয়ে প্রায় অর্ধলাখ বেশি। ডো জোনসের অর্থনীতিবিদদের পূর্বাভাসে ওই সাত দিনে যুক্তরাষ্ট্রে সর্বোচ্চ সাত লাখ ৩৩ হাজার জন বেকারত্ব সুবিধার জন্য আবেদন করতে পারেন বলে জানানো হয়েছিল। এর আগের সপ্তাহেও দেশটিতে সাত লাখ ৪২ হাজার মার্কিনি বেকারত্ব সুবিধার জন্য আবেদন করেছিলেন।

তবে বেকারের সংখ্যা বাড়লেও ধীরে ধীরে তাদের জন্য বরাদ্দ আর্থিক সহায়তা কমাতে শুরু করেছে মার্কিন প্রশাসন। যুক্তরাষ্ট্রে বেকারত্ব সুবিধা পাচ্ছেন এমন লোকের সংখ্যা গত দুই সপ্তাহ ধরেই কমছে। একদিকে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে, অন্যদিকে আর্থিক সুবিধাও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে এমন দ্বিমুখী সংকটে নাজেহাল অবস্থা অনেক মার্কিনির।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে দেশটিতে আবারও হু হু করে বাড়তে শুরু করেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। এর মধ্যে প্রিয়জনের সঙ্গে থ্যাংকসগিভিং পালন করতে অনেকেই দেশটির বিভিন্ন প্রান্তে ছুটে গেছেন। ফলে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে আবারও ব্যাপক হারে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়া আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্যমতে, গত বৃহস্পতিবার বিকাল নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ মানুষ। মারা গেছেন অন্তত দুই লাখ ৬০ হাজার ২০০ জন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..