প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

যুক্তরাষ্ট্রে স্কুলে বন্দুক হামলা ১৯ শিশুসহ নিহত ২১

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের এক প্রাথমিক স্কুলে আচমকা বন্দুক হামলা চালায় ১৮ বছরের এক কিশোর। তার ছোড়া গুলিতে অন্তত ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে রয়েছে ১৯ শিক্ষার্থী। পরে পুলিশের গুলিতে মারা গেছে বন্দুকধারী কিশোরটিও। খবর: এপি।

রাজ্যের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট টুইট করে এই তথ্য জানিয়েছেন। প্রাণহানির সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। রব এলিমেন্টারি স্কুলে প্রায় ৬০০ শিক্ষার্থী রয়েছে। হঠাৎ এক বন্দুকধারী সেই প্রাথমিক স্কুলে গিয়ে গুলি চালাতে শুরু করে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দুপুরে ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

এপি জানায়, গত এক দশকে আমেরিকায় সংঘঠিত বন্দুক হামলার মধ্যে ভয়ংকর হামলা এটি। আর টেক্সাসের কোনো স্কুলে হামলার ক্ষেত্রে এটিই ভয়ংকরতম।

নিহত বন্দুকধারীর নাম সালভাদর রামোস। সে একটি হ্যান্ডগান ও রাইফেল নিয়ে হামলা চালিয়েছিল বলে পুলিশ জানায়। পরে দুই পুলিশ অফিসারের সঙ্গে গোলাগুলিতে সে মারা যায়। দুই পুলিশ অফিসারের কোনো ক্ষতি হয়নি বলে জানা গেছে। হামলায় আরও অনেক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। উভালডে মেমোরিয়াল হাসপাতালে তাদের চিকিৎসা চলছে বলে জানা গেছে। তবে তাদের মধ্যে কার আঘাত কতটা গুরুতর সে সম্পর্কে কোনো বিশদ বিবরণ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দেয়নি।

এদিকে পাঁচ দিনের দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সফর সেরে গত মঙ্গলবার দেশে ফিরেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। হামলার পরে তিনি জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে জানিয়ে দেন ২৮ মে সূর্যাস্ত পর্যন্ত দেশের পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। দেশে আগ্নেয়াস্ত্র রাখার নিয়মে আরও কড়াকড়ি করা হবে বলেও জানান তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রে অহরহ গুলির ঘটনা ঘটছে। এতে প্রাণহানিও বাড়ছে। চলতি মাসের সর্বশেষ ১৫ দিনে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্থানে গুলিতে ৮০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের অলাভজনক প্রতিষ্ঠান গান ভায়োলেন্স আর্কাইভের নথি থেকে গত কয়েক দিনে দেশটিতে গুলির ঘটনার এসব তথ্য পাওয়া যায়। প্রতিষ্ঠানটি বিভিন্ন সূত্র থেকে এ-সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করে।