বিশ্ব সংবাদ

যুদ্ধবিরতিতে রাজি করাতে তুরস্কে মার্কিন নেতারা

শেয়ার বিজ ডেস্ক:সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে কুর্দিদের বিরুদ্ধে তুরস্কের সামরিক অভিযান বন্ধ করার ব্যাপারে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ানকে রাজি করাতে যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও গতকাল বুধবার আংকারার উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরই মধ্যে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব নাকচ করার পরও যুক্তরাষ্ট্র সরকার এই উদ্যোগ নিয়েছে। সূত্র: ডেইলি সাবাহ, আল জাজিরা।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী যুদ্ধবিরতিতে তুরস্ককে রাজি করানোর জন্য আংকারার উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। এ সময় তিনি দাবি করেন, সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তুরস্কের সামরিক বাহিনী যে অভিযান চালাচ্ছে, তা তার প্রশাসনের সবুজ সংকেতের কারণে নয়।

ডোনাল্ড ট্রাম্প এ সময় আবারও বলেন, ‘আমরা আমাদের ছেলেদের দেশে ফেরত আনতে চাই। ফলে এখন থেকে ওই এলাকার সবাইকে নিজেদের যার যার সহায়-সম্পত্তি রক্ষা করতে হবে এবং আমরা বিষয়টি দেখব যে আসলে সেখানে কী হচ্ছে।”

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা তুরস্ককে যুদ্ধবিরতিতে রাজি করাতে জোরালোভাবে চেষ্টা করব, কিন্তু তারা যদি যুদ্ধবিরতিতে রাজি না হয়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে। আপনারা জানেন, এরই মধ্যে আংকারার বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।’

এদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে টেলিফোন সংলাপে এরদোয়ান সুস্পষ্টভাবে বলেন, উত্তর সিরিয়ায় তারা কখনও যুদ্ধবিরতিতে রাজি হবেন না। এছাড়া আজারবাইজানের বাকু থেকে ফেরার পথে এরদোয়ান বলেন, সিরিয়ার তুর্কি সীমান্ত এলাকায় সামরিক অভিযান বন্ধ করতে অনেক চাপ এসেছিল, কিন্তু আংকারা নিষেধাজ্ঞার ভয়ে উদ্বিগ্ন নয়। তুরস্ক এসবের পরোয়া করে না। সীমান্তে সন্ত্রাসের করিডোর উৎখাতে আংকারা বদ্ধপরিকর।

পশ্চিমা দেশগুলোর প্রতি ইঙ্গিত করে এরদোয়ান বলেন, তারা অভিযান বন্ধে আমাদের ওপর চাপ দিচ্ছে। নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছে। কিন্তু আমাদের লক্ষ্য পরিষ্কার। আমরা কোনো নিষেধাজ্ঞা নিয়ে উদ্বিগ্ন নই। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এর আগেও তুরস্কের প্রতি সিরিয়ার কুর্দি বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে ওই আহ্বান প্রত্যাখ্যান করে এরদোয়ান বলেন, আংকারা সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গে একই টেবিলে বসবে না।

সর্বশেষ..