বিশ্ব সংবাদ

যুবরাজ সালমানের শাস্তি চান নিহত খাসোগির বাগদত্তা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যার দায়ে সৌদি যুবরাজকে ‘অবিলম্বে শাস্তি দেয়ার’ দাবি জানিয়েছেন খাসোগির প্রেমিকা ও বাগদত্তা হাতিস চেংগিস। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, এ শাস্তি দেয়া হলে তা শুধু ন্যায়বিচারই নিশ্চিত করবে না, বরং একই ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তিও রোধ করবে। খবর: বিবিসি।

জামাল খাসোগি হত্যা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের একটি গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশের পর হাতিস চেংগিসের পক্ষ থেকে এমন বিবৃতি এলো। সৌদি আরব ইতোমধ্যেই ওই প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে। যুবরাজ মোহাম্মদ বিন-সালমান ওই হত্যাকাণ্ডে তার কোনো ধরনের ভূমিকা থাকার কথা প্রত্যাখ্যান করেছেন।

২০১৮ সালের অক্টোবরে তুরস্কে সৌদি কনস্যুলেটে খুন হন সাংবাদিক জামাল খাসোগি। তার মৃতদেহও খুঁজে পাওয়া যায়নি। ৫৯ বছর বয়সী খাসোগি একসময় সৌদি সরকারের একজন উপদেষ্টা ছিলেন। কিন্তু পরে রাজ পরিবারের সঙ্গে তার দূরত্ব তৈরি হলে ২০১৭ সালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছা নির্বাসনে যান। সেখান থেকে তিনি প্রতি মাসে ওয়াশিংটন পোস্টে কলাম লিখতেন, যাতে মূলত সৌদি যুবরাজের বিভিন্ন নীতির সমালোচনা করা হতো। তবে প্রথম কলামেই তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন যে তাকে ভিন্নমত দমনের অংশ হিসেবে গ্রেপ্তার করা হতে পারে।

সোমবার দেয়া বিবৃতিতে হাতিস চেংগিস বলেন, একজন নির্দোষ ব্যক্তিকে নিষ্ঠুর হত্যার যিনি নির্দেশ দিয়েছেন সেই যুবরাজকে কোনো ধরনের বিলম্ব ছাড়াই শাস্তি দেয়া উচিত। যুবরাজকে শাস্তি না দেয়া হলে তা আমাদের সবাইকেই বিপদাপন্ন করে তুলবে এবং এটা হবে মানবতার ওপর একটি দাগের মতো।

চেংগিস একজন তুর্কি শিক্ষাবিদ ও গবেষক। তিনি বিশ্বনেতাদের যুবরাজ থেকে দূরত্বে থাকা এবং সৌদি আরবের ওপর নিষেধাজ্ঞার মতো শাস্তি দেয়ার আহ্বান জানান।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..