বাণিজ্য সংবাদ

যুব কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ইউনিসেফের পাশে সামিট

শেয়ার বিজ ডেস্ক: জনসংখ্যায় যুব জনগোষ্ঠী বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সম্পদ। যুব জনগোষ্ঠী সমৃদ্ধির জন্য প্রয়োজন উপযুক্ত দক্ষতা। সামিট তার সিএসআর কার্যক্রমের অংশ হিসেবে স্কুলবহির্ভূত তরুণ-তরুণীদের জীবিকার জন্য দক্ষতা বিকাশে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের জন্য ইউনিসেফকে সহায়তা করছে।
ইউনিসেফকে অনুদান হস্তান্তরকালে সামিট গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান বলেন, ‘বাংলাদেশের তরুণ জনগোষ্ঠী অত্যন্ত মেধাবী ও কঠোর পরিশ্রমী। আমরা স্কুলবহির্ভূত কিশোর-কিশোরীদের কর্মসক্ষমতা বিকাশে ইউনিসেফকে সহযোগিতা করছি।’
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে সামিট গ্রুপের পরিচালক আজিজা আজিজ খান এবং ইউনিসেফ বাংলাদেশের করপোরেট এলায়েন্সেস ও সিএসআর বিশেষজ্ঞ সাইমন পিকাপ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, অল্টারনেটিভ লার্নিং প্রোগ্রাম সবচেয়ে সুবিধাবঞ্চিত ও অনগ্রসর স্কুলবহির্ভূত কিশোর-কিশোরীদের জন্য শিক্ষার পথ তৈরি করে। যাতে তারা শিক্ষার মাধ্যমে জীবনের উন্নতি সাধন, চাকরি ও সচ্ছল বা সাধারণ জীবনে সম্পৃক্ত হতে পারে। ব্র্যাকের সঙ্গে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে ওই কর্মসূচিটি তাত্ত্বিক ও দক্ষতা প্রশিক্ষণসহ ছয় মাসের শিক্ষানবিস কর্মসূচির মাধ্যমে উপযুক্ত কাজের সুযোগ প্রদান করে। আইএলওর সহায়তায় ন্যাশনাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ভোকেশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্কের (এনটিভিকিউএফ) প্রযুক্তিগত অনুসরণে ওই কর্মসূচির নকশা করা হয়েছে। রিকগনিশন ফর প্রায়োর লার্নিং (আরপিএল)-এর প্রক্রিয়া ব্যবহার করে শিক্ষার্থীরা ন্যাশনাল সার্টিফিকেশন্স ও পুনরায় উচ্চতর শিক্ষার সুযোগ পাবে। ১৭ ট্রেডের মাধ্যমে ছেলে-মেয়ে উভয়েই ওই কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারবে। আর সব শিক্ষার্র্থীই শিক্ষানবিসকাল থেকে যাতায়াত ভাড়াসহ আনুষঙ্গিক ন্যূনতম খরচ বহনের জন্য নগদ অর্থ সহায়তা পাবে।

সর্বশেষ..