বাণিজ্য সংবাদ শিল্প-বাণিজ্য

রপ্তানিমুখী শিল্প ও নিত্যপণ্য বিপণন বিধিনিষেধের বাইরে রাখুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম: বৈশ্বিক মহামারি কভিড-১৯ সংক্রমণের বিস্তাররোধে গত ১ জুলাই থেকে দেশে চলছে কঠোর লকডাউন। তবে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সরকার যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে পালন করার শর্তে ১৫ জুলাই থেকে ৮ দিনের জন্য লকডাউন শিথিল করেছে। এরপর ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত পুনরায় ১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এই বিধিনিষেধ অনুযায়ী উল্লিখিত সময়ে সব ধরনের সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, বেসরকারি অফিস, সব শিল্পকারখানা বন্ধ থাকবে এবং জরুরি পণ্যবাহী যানবাহন, অ্যাম্বুলেন্স ও চিকিৎসা-সংক্রান্ত কাজে ব্যবহƒত যানবাহন ছাড়া সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে বন্দর ও তৎসংশ্লিষ্ট অফিসগুলো এ নির্দেশনার আওতামুক্ত থাকবে। এছাড়া কাঁচা বাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত এবং খাবারের দোকান, হোটেল-রেস্তোরাঁ সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খাবার বিক্রি করতে পারবে।

এ পরিস্থিতিতে দি চিটাগং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাহবুবুল আলম ক্রমবর্ধমান করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বিস্তাররোধে সরকারের লকডাউন পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়ে লকডাউন চলাকালে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডকে কিছুটা স্বাভাবিক রাখতে রপ্তানিমুখী শিল্প, শিল্পের কাঁচামাল, মৎস্য পরিবহন এবং দেশের বিশাল জনগোষ্ঠীর নিত্য ভোগ্যপণ্যের চাহিদাপূরণ, সংকটরোধসহ বাজার স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে এসব পণ্যের উৎপাদন ও বিপণনকে বিধিনিষেধের আওতামুক্ত রাখার বিষয় গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করতে সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। গতকাল এক বিবৃতির মাধ্যমে চেম্বার সভাপতি এই আহ্বান জানান।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..