স্পোর্টস

রাজশাহীর টানা জয়ে উজ্জ্বল লিটন-অলক

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে গত ম্যাচে রাজশাহী রয়্যালসের জয়ে অবদান রেখেছিলেন। গতকালও বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সেই অলক কাপালী-লিটন দাস জ্বলে ওঠেন। সিলেট থান্ডারের বিপক্ষে একজন বল হাতে পথ দেখান। অন্যজন ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন। শেষ পর্যন্ত তাদের নৈপুণ্যে পদ্মাপাড়ের দলটি পেয়ে যায় ৮ উইকেটের সহজ জয়। 

গতকাল দিনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে সিলেটকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে মাত্র ৯১ রানেই গুটিয়ে দেয় রাজশাহী। জবাব দিতে নেমে মাত্র ১০.৫ ওভারে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আন্দ্রে রাসেলের দল। এ নিয়ে চলতি বিপিএলে টানা দুই ম্যাচেই হাসিমুখে মাঠ ছাড়ে পদ্মাপাড়ের দলটি।

রাজশাহীর টানা জয়ে গতকাল লিটন করেন ২৬ বলে ৭ চারে অপরাজিত ৪৪ রান। এর আগে অলক কাপালী বল হাতে ৩ ওভারে মাত্র ১৭ রানে নেন ৩টি উইকেট।

ছোট লক্ষ্য তাড়ায় গতকাল শুরুতেই নাঈম হাসানের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন রাজশাহীর ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই। তবে তার অভাব মোটেও বুঝতে দেননি লিটন দাস। দ্বিতীয় উইকেটে আফিফ হোসেনকে নিয়ে ঝড় তোলেন সিলেট থান্ডারের বোলারদের ওপর। অন্যদিকে বেশ ব্যাট চালাচ্ছিলেন আফিফও। যে কারণে মাত্র ৭ ওভারে তাদের জুটি থেকে আসে ৬২ রান।

আফিফ ৩ চার ও দুই ছয়ে শেষ পর্যন্ত ৩০ রানে ফেরেন পেসার নাভিন-উল-হকের বলে। তবে জয়ের জন্য বাকি পথটা লিটন সহজেই পাড়ি দেন অভিজ্ঞ শোয়েব মালিককে নিয়ে। ২৬ বলে ৭ চারে ৪৪ রানে অপরাজিত থেকে যান লিটন।

এর আগে বল হাতে শুরুটা ভালো ছিল না রাজশাহীর। সে সুযোগে সিলেটের দুই ওপেনার জনসন চার্লস ও রনি তালুকদার ব্যাট চালিয়ে ঝড় তোলার আভাস দিয়েছিলেন। কিন্তু  চতুর্থ ওভারে এ জুটি ভাঙেন রাসেল। ১৭ বলে ১৯ রান করা রনিকে সেøায়ারে পরাস্ত করে ফেরান এলবিডব্লিয়ের ফাঁদে ফেলে। এরপরই পথ হারায় সিলেট। পরের ওভারে অলক কাপালীর সোজা বলে সøগ করতে গিয়ে বোল্ড হন চার্লস। ওভারের শেষ বলে আলগা শটে স্টাম্পে বল টেনে আনেন জীবন মেন্ডিস।

দ্রুত তিন উইকেট তুলে নিলেও রাজশাহীর কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন মোসাদ্দেক ও মিথুন। চতুর্থ উইকেটে তারা যোগ করেন ৩১ রান। শেষ পর্যন্ত মিথুনকে ফিরিয়ে পদ্মাপাড়ের দলটির স্বস্তি এনে দেন রবি বোপারা। এর কিছুক্ষণ পরই ইংল্যান্ডের এ অলরাউন্ডার সাজঘরের পথ দেখান মোসাদ্দেককে। যে কারণে সিলেট আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। ১৫.২ ওভারেই তাই মাত্র ৯১ রানে গুটিয়ে যেতে বাধ্য হয়।

১৭ রানে ৩ উইকেট নিয়ে রাজশাহীর সফলতম বোলার অলক কাপালী। দুটি করে উইকেট নেন বোপারা ও ফরহাদ রেজা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

সিলেট থান্ডার: ১৫.৩ ওভারে ৯১ (রনি ১৯, চার্লস ১৬, মিথুন ২০ জীবন ০, মোসাদ্দেক ২০, মিলন ১০, নাঈম ১, নাভিন ২, সান্তোকি ০, নাজমুল অপু ০, ইবাদত ১* ; রাসেল ৩.৩-০-২৫-১, তাইজুল ২-০-১৫-০, আবু জায়েদ ২-০-১৪-০, অলক ৩-০-১৭-৩, বোপারা ৩-০-১০-২, ফরহাদ ২-০-৯-২)

রাজশাহী রয়্যালস: ১০.৫ ওভারে ৯৫/২ (জাজাই ০, লিটন ৪৪*, আফিফ ৩০, মালিক ১৬*; নাঈম ৩-১-১৬-১, ইবাদত ২-০-২০-০, সান্তোকি ১-০-১৫-০, নাভিন ২-০-১৯-০, জীবন ২-০-১৪-০)।

ফল: রাজশাহী রয়্যালস ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যাচসেরা: অলক কাপালী

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..