প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

রাজশাহী অঞ্চলে লিচুর বাম্পার ফলনের আশা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় চাষি, কৃষিবিদসহ রাজশাহী অঞ্চলের সবাই লিচুর বাম্পার ফলনের আশা করছেন। মৌসুমের এ সময়টায় কিছু লিচু চাষের এলাকায় দেখা যায়, চাষিরা এখন ভালো ফলনের জন্য গাছের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। ফল গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আলীম উদ্দিন বলেন, এবারের মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় গাছগুলোতে ব্যাপক ফলন হওয়ায় লিচুর বাম্পার ফলনের আশা করা হচ্ছে। খবর বাসস।

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় শতাধিক চাষি স্বনির্ভরতা অর্জন করায় লিচু চাষ খুব জনপ্রিয়তা পেয়েছে। চাষিরা ছাড়াও বসতবাড়িতে উচ্চ ফলনশীল চায়না-৩ এবং বোম্বে ও মাদ্রাজি জাতের লিচু চাষ করে ভালো ফলন এবং দামও ভালো পাচ্ছে।

কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ (ডিএই) জানায়, ছোট-বড় মিলিয়ে এ অঞ্চলে ৯০টিরও বেশি লিচুবাগান রয়েছে। রাজশাহী ডিএই’র উপপরিচালক দেব দুলাল ঢালি বলেন, জুন পর্যন্ত যদি আবহাওয়া অনুকূলে থাকে, তবে লিচুর ব্যাপক ফলনের আশা করা যায়।

তিনি বলেন, একটি পাঁচ বছরের গাছে ১০০ থেকে দেড়শ’ কেজি লিচু বা দুই থেকে ছয় হাজার পিস লিচু হতে পারে। বড়গাছি, বাগছাড়া, চারঘাট ও বাঘা উপজেলার অনেক পরিবার লিচু চাষ করে আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছে।

হর্টিকালচার বিশেষজ্ঞ ড. সাইফুর রহমান বলেন, বাণিজ্যিকভাবে লিচু চাষ করে ভালো ফলন পাওয়ায় দ্রুত শতাধিক চাষির ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে এবং বাজারদরও ভালো পেয়েছে। এ অঞ্চলের শতাধিক লিচুবাগান ফসলি জমিতে করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

উর্বর মাটি, অনুকূল আবহাওয়া, ভালো মূল্য এ অঞ্চলে লিচু চাষের জন্য সহায়ক। আবুল হাশেম নামে এক স্কুলশিক্ষক বলেন, গত বছর তিনি দুই বিঘা জমিতে ৪০টি লিচু গাছের ফলন করে বাগান থেকে আড়াই লাখ টাকার লিচু বিক্রি করেছেন।

বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের উপপরিচালক (কৃষি) এটিএম রফিকুল ইসলাম অনুকূল আবহাওয়ার কারণে লিচুর বাম্পার ফলনের আশা প্রকাশ করেন।