প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

রাশিয়ার স্যাটেলাইট বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: রাশিয়ার চালানো স্যাটেলাইট বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র নেড প্রাইস এ প্রতিক্রিয়া জানান। তিনি বলেন, রাশিয়া যে পরীক্ষা চালিয়েছে, তা বিপজ্জনক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন। বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে রাশিয়া নিজেদের একটি স্যাটেলাইট গুঁড়িয়ে দিয়েছে। এতে ধ্বংসাবশেষ তৈরি হয়। এ কারণে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের (আইএসএস) ক্রুরা ক্যাপসুলে আশ্রয় নিতে বাধ্য হন।

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে বর্তমানে সাতজন ক্রু সদস্য রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে চারজন যুক্তরাষ্ট্রের, একজন জার্মানির ও দুজন রাশিয়ার নাগরিক।

নেড প্রাইস এক ব্রিফিংয়ে বলেন, রাশিয়া বেপরোয়াভাবে তার নিজস্ব একটি স্যাটেলাইটের বিরুদ্ধে ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র জানান, রাশিয়ার এই পরীক্ষার ফলে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৫০০টির বেশি গতিবিধি অনুসরণযোগ্য ধ্বংসাবশেষ তৈরি হয়েছে। এ ছাড়া কয়েক হাজার ছোট ধ্বংসাবশেষ তৈরি হয়েছে। এই ধ্বংসাবশেষ সবার স্বার্থের জন্যই হুমকিস্বরূপ। তাদের এমন বিপজ্জনক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ মহাকাশের দীর্ঘমেয়াদি স্থিতিশীলতাকে বিপন্ন করে তুলছে।

রাশিয়ার দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজের জবাব দিতে যুক্তরাষ্ট্র তার অংশীদার ও মিত্রদের সঙ্গে কাজ করবে বলেও জানান নেড প্রাইস।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের যে আশঙ্কার কথা বলছে, তা উড়িয়ে দিয়েছে রাশিয়ার মহাকাশ সংস্থা।

বিবিসি বলছে, ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে রাশিয়া কসমস-১৪০৮ নামের একটি স্যাটেলাইট ধ্বংস করেছে। গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহকারী এ স্যাটেলাইট ১৯৮২ সালে উৎক্ষেপণ করা হয়। এক টনের বেশি ওজনের এ স্যাটেলাইট অনেক আগেই কাজ করা বন্ধ করে দেয়।