বিশ্ব সংবাদ

রেকর্ড সর্বোচ্চ অবস্থানে বিশ্ব পুঁজিবাজার

শেয়ার বিজ ডেস্ক : কভিড-১৯ টিকা শিগগিরই পাওয়া যাবে এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনের দায়িত্ব নেওয়ার বিষয়ে আর তেমন বাধা নেই এমন আশায় গতকাল বুধবার বিশ্ব পুঁজিবাজারে বড় উত্থান হয়েছে। এদিন বিশ্ব পুঁজিবাজার সূচক রেকড সর্বোচ্চ অবস্থানে পৌঁছেছে। প্রতিষ্ঠার পর মার্কিন পুঁজিবাজার সূচিক ডাও জোনস সূচক ১২৫ বছরের রেকর্ড ভেঙে ৩০ হাজার পয়েন্টের মাইলফলক ছুঁয়েছে। খবর: রয়টার্স ও মার্কেটওয়াচ। 

গতকাল বিশ্ব পুঁজিবাজারের সার্বিক সূচক এমএসসিআই সূচক দশমিক এক শতাংশ বেড়েছে। আগে থেকেই ঊর্ধ্বমুখী ধারায় থাকায় গত এ সূচক রেকর্ড সর্বোচ্চ অবস্থানে পৌঁছায়। জাপান বাদে এছাড়া এশিয়ার সার্বিক সূচক এদিন দশমিক দুই শতাংশ বেড়ে ২৯ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে পৌঁছায়। 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের কয়েক সপ্তাহ পেরিয়ে গেছে। বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে মত-পার্থক্যের জের ধরে এতদিন নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু করা যায়নি। কিন্তু সম্প্রতি ট্রাম্পের সবুজ সংকেত পাওয়ার পর এই প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। এদিকে, ক্ষমতা হস্তান্তরে হোয়াইট হাউসের কার্যক্রমের প্রশংসা করে বাইডেন বলেছেন, আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত কোনো সমস্যা হয়নি এবং পরবর্তীতেও হবে না বলে এনবিসি নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে উল্লেখ করেছেন বাইডেন। নির্বাচনের এ খবরেই মূলত মার্কিন পুঁজিবাজারে উত্থান হয়।

গত মঙ্গলবার ৩০ হাজার পয়েন্টের মাইলফলক ছুঁয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পুঁজিবাজার ডাও জোনস সূচক। প্রতিষ্ঠা হওয়ার প্রায় ১২৫ বছর পর সূচকটি এ অবস্থানে এলো। ১৮৯৬ সালে যাত্রা শুরু করে ডাও জোনস সূচকটি। মার্কিন অর্থনীতির নানা চড়াই-উতরাইয়ের অন্যতম নিয়ন্ত্রক এ সূচক। এমনকি ১৯৩০ সালের মহামন্দার সূচনাই হয় এ সূচক পতনের মধ্য দিয়ে।

ডাও জোনসের পাশাপাশি গতকাল বেড়েছে ওয়াল স্ট্রিটের বাকি দুটো সূচকও। এসঅ্যান্ডপি ৫০০ বেড়েছে এক দশমিক ৬২ শতাংশ এবং নাসডাক সূচকটি বেড়েছে এক দশমিক ৩১ শতাংশ। ডাও জোনস সূচকের বৃদ্ধির পেছনে অন্যতম ভূমিকা রেখেছে টেসলার শেয়ারের দর বৃদ্ধি। আর এর ফলে বৈদ্যুতিক গাড়ির কোম্পানি টেসলার সহপ্রতিষ্ঠাতা এলন মাস্কের সম্পদের পরিমাণও বাড়ছে হু হু করে। এদিন বিশ্বের ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন এলন মাস্ক।

অন্যদিকে, যুক্তরাজ্যের পুঁজিবাজারেও সূচক বেড়েছে গতকাল। যুক্তরাজ্যের এফটিএসই ১০০ সূচকটি এক দশমিক ছয় শতাংশ বেড়েছে। মার্কিন কোম্পানি ফাইজার, মডার্নার পর এবার অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়-অ্যাস্ট্রাজেনেকা জুটির টিকার কার্যকারিতা নিয়ে আশাব্যঞ্জক ফলাফল জানা গেছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অন্তর্বর্তীকালীন প্রতিবেদন প্রকাশ করে তারা জানিয়েছে, ব্রিটেন ও ব্রাজিলের ট্রায়ালে করোনা প্রতিরোধে গড়ে ৭০ শতাংশ কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে তাদের টিকা ভ্যাকসিন। আর এ খবরে ইতিবাচক ছিল যুক্তরাজ্যের পুঁজিবাজার।

গতকাল এশিয়ার পুঁজিবাজারে কিছুটা মিশ্র প্রভাব লক্ষ করা যাচ্ছে। বেড়েছে জাপানের নিকেই, হংকংয়ের হ্যাংসেং ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধান সূচক। অন্যদিকে, দক্ষিণ কোরিয়ার কোসপি ও চীনের সাংহাই কম্পোজিট সূচক কিছুটা কমেছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..