প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

রোহিঙ্গা নির্যাতন: মিয়ানমারের সঙ্গে ফুটবল ম্যাচ বাতিল মালয়েশিয়ার

 

শেয়ার বিজ্ ডেস্ক: মিয়ানমারের সঙ্গে অনূর্ধ্ব-২২ ফুটবলের দুটি প্রীতি ম্যাচ বাতিল করেছে মালয়েশিয়া। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর দেশটির সেনা-পুলিশের রক্তক্ষয়ী দমনপীড়নের প্রতিবাদে মালয়েশিয়া এ পদক্ষেপ নিয়েছে। মালয়েশিয়ার জাতীয় ফুটবল দলের এক মুখপাত্র এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর রয়টার্স।

রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা চালাচ্ছে দেশটির সরকারি বাহিনী। এতে প্রাণহানির খবর আসছে। হাজারো রোহিঙ্গা ঘরছাড়া হয়েছে। অনেকে বাংলাদেশ সীমান্তে অনুপ্রবেশ করছে।

মিয়ানমারে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গারা ‘খুব সম্ভবত মানবতাবিরোধী অপরাধের’ শিকার বলে মন্তব্য করেছে জাতিসংঘ। রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের নিষ্ঠুর দমনপীড়নের বিরুদ্ধে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ মালয়েশিয়া সরব রয়েছে। মালয়েশিয়ার মন্ত্রিসভা গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করে মালয়েশিয়ার জাতীয় ফুটবল দলের এক মুখপাত্র বলেন, চলতি মাসে মিয়ানমারের সঙ্গে দুটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। রোহিঙ্গা ইস্যুকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে তা বাতিল করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ার জাতীয় ফুটবল দল হারিমাউ মালয়েশিয়া টুইটারে এক পোস্টে জানিয়েছে, মালয়েশিয়া ও মিয়ানমারের মধ্যকার অনূর্ধ্ব-২২ দলের আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ দুটি বাতিল করা হয়েছে। মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনে ৯ ও ১২ ডিসেম্বর ম্যাচ দুটি হওয়ার কথা ছিল।

রোহিঙ্গা মুসলিমদের ‘জাতিগত নির্মূল’ করার তৎপরতা চালানোয় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার জোট আসিয়ানে মিয়ানমারের সদস্যপদ অবশ্যই পুনর্বিবেচনা করা উচিত বলে গত বুধবার মত দিয়েছেন মালয়েশিয়ার ক্রীড়ামন্ত্রী খাইরি জামালউদ্দিন। মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে রোববার অনুষ্ঠেয় এক সমাবেশে অংশ নেবেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক।

এর আগে মালয়েশিয়া গত শুক্রবার সে দেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছিল।