Print Date & Time : 26 May 2020 Tuesday 12:32 pm

লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের পর্ষদ সভা স্থগিত

প্রকাশ: ফেব্রুয়ারী ৯, ২০২০ সময়- ১২:৩৭ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক: আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের কোম্পানি লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড পরিচালনা পর্ষদ সভা স্থগিত ঘোষণা করেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের পর্ষদ সভা আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি বেলা সাড়ে ৩টায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অনিবার্য কারণবশত পর্ষদ সভা স্থগিত করা হয়েছে। পর্ষদ সভার নতুন তারিখ পরে জানানো হবে বলে কোম্পানিটি জানিয়েছে। উল্লেখ্য, পরিচালনা পর্ষদ সভায় কোম্পানিটির ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

এর আগে ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮৫ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ১৪ পয়সা। আর ওই সময় মোট মুনাফা করেছে ৪৩ কোটি ৪৩ লাখ ১০ হাজার টাকা।

এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ারদর শূন্য দশমিক ৬২ শতাংশ বা ১০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ১৬ টাকা ২০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও একই ছিল। দিনজুড়ে ১১ লাখ ৭০ হাজার ২১৪টি শেয়ার মোট ৫৮৬ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর এক কোটি ৮৯ লাখ ৩৩ হাজার টাকা। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ারদর ১৩ টাকা ৯০ পয়সা থেকে ২৭ টাকা ৮০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

এর আগে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য কোম্পানিটি সাড়ে সাত শতাংশ নগদ ও সাড়ে সাত শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটি ইপিএস হয়েছিল পাঁচ টাকা ৯৭ পয়সা ও এনএভি ২৬ টাকা ১৬ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ১৮৯ কোটি ৮৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

২০০৬ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটি। এক হাজার কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৫১৩ কোটি ১৮ লাখ টাকা। কোম্পানির রিজার্ভের পরিমাণ ৩৬০ কোটি পাঁচ লাখ ৩০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির মোট ৫১ কোটি ৩১ লাখ ৭৯ হাজার ৬৪১টি শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা বা পরিচালকদের ৩৩ দশমিক ৫৬ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীর ২৩ দশমিক ১২ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োগকারী এক দশমিক ৩৭ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে বাকি ৪১ দশমিক ৯৫ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।