বিশ্ব সংবাদ

লকডাউন নিয়ন্ত্রণে সেনা মোতায়েন হচ্ছে ইতালি ও মালয়েশিয়ায়

শেয়ার বিজ ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারিতে গত কয়েক দিনে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে ইতালি। গত শুক্রবার ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ভাইরাস-আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৬২৭ জন। এক দিনে এত মৃত্যু করোনার উৎস চীনেও দেখা যায়নি। ইতালির সংকট ক্রমেই ভয়াবহ হয়ে উঠছে। এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এবার সেনাবাহিনীর সাহায্য নিচ্ছে দেশটির সরকার। মালয়েশিয়ায়ও একই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। করোনাভাইরাসের কারণে আগামী দুই সপ্তাহের জন্য ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। খবর: রয়টার্স।

শুক্রবার ইতালির লোম্বার্ডি অঞ্চলে প্রেসিডেন্ট আত্তিলিও ফন্টানা জানিয়েছেন, ‘দেশটির উত্তরাঞ্চলে অবরুদ্ধ পরিস্থিতি (লকডাউন) বজায় রাখতে রাস্তায় সেনাসদস্য মোতায়েন করা হচ্ছে।’ ইতালিতে করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত লোম্বার্ডি অঞ্চল। গত কয়েক দিনে রীতিমতো রোগের বিস্ফোরণ ঘটেছে সেখানে। এ অঞ্চলে ভাইরাস পরিস্থিতি  মোকাবিলায় সাহায্য করছেন চীনের রোগ বিশেষজ্ঞরাও। তারা জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে এ অঞ্চলে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার প্রয়োগ যথেষ্ট নয়। এসবের পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেয় আঞ্চলিক সরকার।

এদিকে করোনা-সংকটে মানুষজনের বাইরে বের হওয়া আটকাতে সেনা মোতায়েনের ঘোষণা দিয়েছে মালয়েশিয়াও। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকোব জানিয়েছেন, আগামী রোববার থেকেই মালয়েশিয়ার রাস্তায় সেনাসদস্যরা টহল দেবেন। এছাড়া ইন্দোনেশিয়ায় গত শুক্রবার জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন দেশটির গভর্নর আনিস বাসুয়েদান।

তিউনিসিয়ায়ও করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে সাধারণ লকডাউন জারি করা হয়েছে। এর ফলে মানুষের অবাধ যাতায়াত নিয়ন্ত্রণ করা হবে। শুক্রবার দেশটির প্রেসিডেন্ট এ ঘোষণা দিয়েছেন। দরিদ্রদের জন্য আগামী ছয় মাস ঋণ পরিশোধ স্থগিত রাখবে তিউনিসিয়ার ব্যাংকগুলো।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..