সারা বাংলা

লবণের দাম বৃদ্ধির গুজবে কান না দিতে প্রশাসনের আহ্বান

প্রতিনিধি, নীলফামারী : পেঁয়াজের দাম আতঙ্কের পর নীলফামারীতে এবার লবণের দাম বাড়ার গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। এমন গুজবে গতকাল মঙ্গলবার লবণ কেনার হিড়িক পড়েছিল গ্রামসহ শহরের বিভিন্ন দোকানে। এ খবরে জেলা প্রশাসন মাঠে নামার পর পরিস্থিতি খানিকটা পরিবর্তন হয়। জেলা প্রশাসন লবণের দাম বৃদ্ধি গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

গতকাল সকাল থেকে মানুষের মুখে মুখে লবণের দাম বাড়ার গুজব ছড়িয়ে পড়ে। পেঁয়াজের দাম আতঙ্কের পর লবণের দাম বেড়েছে গুজব ছড়িয়ে পড়ায় নীলফামারীতে বাড়তি লবণ কেনার জন্য স্থানীয় দোকানগুলোয় ভিড় লেগে যায়। ভোক্তারা অধিক পরিমাণে লবণ কেনেন। ফলে নীলফামারী সদরসহ ছয় উপজেলার পাড়া-মহল্লার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের দোকানে লবণের চাহিদা বেড়ে যায়। জেলা শহরের বড়বাজার কিচেন মার্কেটে লবণ কিনতে লোকজনের ভিড় দেখা যায়। এ ছাড়া অনেককে একাধিক লবণের প্যাকেট কিনে বাসায় ফিরতে দেখা যায়। এ খবরে জেলা প্রশাসন মাঠে নামার পর খানিকটা পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়।

সদর উপজেলার বাহালীপাড়া গ্রামের ভোক্তা গোলাম কাদের জানান, নীলফামারী শহরে নাকি লবণ পাওয়া যাচ্ছে না। তাই তিনি দুই কেজি লবণ কিনেছেন। তবে আগের দামেই কিনেছেন। প্রত্যন্ত গ্রামে লবণ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে বলেও শোনা যাচ্ছে।

জেলা শহরের লবণের ডিলার ও পরিবেশক তাপস কুমার পাল জানান, এটি একটি গুজবমাত্র। তারা স্বাভাবিক দামেই লবণ বিক্রি করছেন। এ ছাড়া লবণের কোনো ঘাটতি নেই।

শহরের শাখা মাচা বাজারের মুদি দোকানদার মিলন জানান, শুধু শুনছেন বাজারে লবণের দাম বাড়ছে। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত একটু বেশি লবণ বিক্রি হয়েছে। তবে আগের দামেই লবণ বিক্রি করছেন। বিক্রি বেশি হওয়ায় যথেষ্ট লাভ হয়েছে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এলিনা আকতার বলেন, বাজারে যথেষ্ট লবণ রয়েছে। লবণের দাম বৃদ্ধি গুজব মাত্র। গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে নীলফামারীর ডিসি হাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘লবণের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই, এটা সম্পূর্ণ গুজব। জনগণকে গুজবে কান না দিতে মাইকিং করা হচ্ছে।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..