প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

লেখালেখি করে আয়: পছন্দের শীর্ষে হাবপেজেস

 

শরিফুল ইসলাম পলাশ: লেখালেখি করতে কার না ভালো লাগে। যারা লিখতে পছন্দ করেন, তাদের বেশিরভাগই লেখেন শখের বশে। ফেসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও ব্লগ লেখালেখির আগ্রহকে আরও উসকে দিচ্ছে। তবে যারা নিয়মিত লেখেন, তাদের প্রায়ই একটি অপ্রিয় প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়।

‘লেখালেখি করে কি কিছু হয়? এতে কি কোনো লাভ আছে?’ এমন প্রশ্নে যারা মুখ লুকান কিংবা অন্য প্রসঙ্গে যাওয়ার সুযোগ খোঁজেন, এ সুসংবাদ তাদের জন্য। যদি লেখালেখিটা আপনার নেশা হয় আর ইংরেজির ওপর মোটামুটি দখল থাকে, তাহলে বাঁকা প্রশ্নে বিব্রত না হয়ে প্রশ্নকারীদের অবাক করে মুখের ওপরেই বলতে পারেন‘হ্যাঁ বন্ধু, লেখালেখি করেও আয় করা যায়। আর ওই আয়ের পরিমাণও উল্লেখ করবার মতো।’

শুধু আর্টিকেল লিখেই যারা অর্থ উপার্জন করতে চান তাদের জন্য নির্ভরযোগ্য বেশকিছু ওয়েবসাইট বা অনলাইন প্লাটফর্ম আছে। তেমনি একটি মাধ্যম হচ্ছে হাবপেজেস। বিশ্বব্যাপী এ সাইটের জনপ্রিয়তা উল্লেখ করার মতো। হাবপেজেসের নিয়মিত ভিজিটর প্রচুর। ২০১৪ সালে আরেক জনপ্রিয় আর্টিকেলভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘স্কুইডো’ অধিগ্রহণ করে নিয়েছে হাবপেজেস। এর জেরে সাইটটির পরিধি আরও বেড়েছে। তাই আপনি লিখতে চাইলে প্রথম পছন্দ হিসেবে হাবপেজেসকেই বেছে নিতে পারেন। এজন্য হাবপেজেসের সাইটে (www.hubpages.com)গিয়ে লেখার শর্ত, বিষয়বস্তু ও আয় করা অর্থ উত্তোলন প্রক্রিয়া সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা নিন। ইতিহাস-ঐতিহ্য, ভ্রমণ থেকে জীবন-যাপনের খুঁটিনাটিসহ পছন্দের যে কোনো বিষয় নিয়ে আপনি ওই সাইটে লিখতে পারেন।

শুরুতে আপনাকে হাবপেজেসের ওয়েবসাইটে গিয়ে নাম ও ই-মেইল নম্বরের মাধ্যমে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। নিবন্ধনের পর সেখানে নিজের লেখা আর্টিকেল প্রয়োজনীয় ছবি-লিংক-ভিডিওচিত্র, গ্রাফসহ প্রকাশ করতে পারেন। যদি লেখাটি অন্য কোনো ওয়েবসাইট থেকে কপি বা আংশিক পরিবর্তন-পরিবর্ধন করা না হয়, তাহলে অল্প সময়ের মধ্যেই সেটি প্রকাশ হবে। ওই সাইটে প্রকাশিত আর্টিকেলগুলো ‘হাবস’ নামে বেশি পরিচিত। যখনই আপনি ওই সাইটে আর্টিকেল বা ‘হাবস’ পোস্ট করবেন, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে সেটি প্রকাশ হবে। প্রকাশের পর আপনার আর্টিকেলের বিষয়বস্তুর সঙ্গে সংগতিপূর্ণ ও নির্ধারিত বিজ্ঞাপন ওই পেজে দেখানো হবে। বিজ্ঞাপন দেবে সার্চ ইঞ্জিন গুগলের সহযোগী প্রতিষ্ঠান অ্যাডসেন্স। এছাড়া হাবপেজেসের নিজস্ব ‘অ্যাড প্রোগ্রাম’ও রয়েছে। ওই অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের মাধ্যমে হাবপেজেস ‘আমাজন’ ও ‘ই বে’-এর বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে। বিজ্ঞাপনগুলো বিভিন্ন পণ্যের। যেগুলো মূলত ‘আমাজন’, ‘ই বে’ ও অন্য ই-কমার্স সাইটের। ‘হাবপেজেস’ কর্তৃপক্ষ অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন স্থান বিক্রি করে। তাই যত বেশি গুণগত মানসম্পন্ন আর্টিকেল, তত আয়।

যা হোক, আপনার আর্টিকেল বা ‘হাবস’-এ প্রদর্শিত বিজ্ঞাপন থেকে ‘হাবপেজেস’ যে পরিমাণ অর্থ আয় করবে, তার অর্ধেক আপনাকে দেওয়া হবে। গুগল অ্যাডসেন্সের বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে আপনার অ্যাকাউন্টে ১০০ মার্কিন ডলার জমা হতে হবে। তারপরই আপনি পেপাল বা হাবপেজেস নির্ধারিত পেমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে টাকা তুলতে পারবেন। অন্যদিকে হাবপেজেসের নিজস্ব অ্যাড প্রোগ্রামের ক্ষেত্রে আপনার অ্যাকাউন্টে কমপক্ষে মার্কিন ৫০ ডলার জমা হলেই আপনি তা তুলতে পারবেন।

লেখালেখির ক্ষেত্রে সফল হতে চাইলে কিছু বিষয়ে আপনাকে যত্নবান হতে হবে। কোনো অবস্থাতেই নিজের লেখা ছাড়া অন্য কারও লেখা পরিবর্তন-পরিবর্ধন করে দায়সারাভাবে পোস্ট দেওয়ার চেষ্টা করবেন না। সেক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট বাতিল হয়ে যাবে। আর লেখাতে যতটা সম্ভব সহজ শব্দ ব্যবহার করুন। ছোট ছোট বাক্যে লেখা ভালো। বানান ভুল ও বাক্যের অসংগতির বিষয়েও যত্নশীল হোন। চাইলে লেখার সঙ্গে নিজের তোলা ছবি ব্যবহার করতে পারেন। সেই সঙ্গে জুতসই ‘কি-ওয়ার্ড’ আর সহজবোধ্য শিরোনাম ব্যবহার করুন। সবকিছু ঠিক থাকলে অধ্যবসয়ের মাধ্যমে দেশে-বিদেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারেন। সেই সঙ্গে বাড়তি আয় তো থাকছেই।