আজকের পত্রিকা দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

লেনদেনের ৫৮% তিন খাতের

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজারে বড় পতন অব্যাহত রয়েছে। আগের দিনের মতো গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বড় ধরনের পতন দেখা গেছে। আগের কার্যদিবসে সূচক হ্রাস পেয়েছিল ৯২ পয়েন্ট। গতকাল আবারও সূচকের ৬৭ পয়েন্ট পতন লক্ষ্য করা যায়। দিন শেষে সূচক স্থির হয় পাঁচ হাজার ৩১৭ পয়েন্ট। একইভাবে আগের কার্যদিবসগুলোর মতো গতকালও সব খাতেরই শেয়ার বিক্রয়ের চাপ দেখা যায়।
বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গতকাল সকাল থেকেই পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিংহভাগ কোম্পানির শেয়ারে ক্রেতার চেয়ে বিক্রেতার সংখ্যাই বেশি ছিল। এর প্রধান কারণ সম্প্রতি বাজারচিত্র ভালো যাচ্ছে না। বড় বড় পতনে প্রতিনিয়তই পুঁজি হারাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। বিষয়টি মাথায় রেখে অনেক বিনিয়োগকারী তাদের লোকসান আরও ভারি করতে চাচ্ছেন না। ফলে তারা তুলনামূলক কম লোকসানে শেয়ার ছেড়ে দিচ্ছেন। যে কারণে বাজারে বিক্রয় চাপ সৃষ্টি হচ্ছে। এতে কমে যাচ্ছে শেয়ার এবং ইউনিটদর। গতকালের বাজারেও ঠিক এমন চিত্র দেখা যায়।
এদিকে গত কয়েক দিনের মতো বিবিধ খাতেই গতকাল শেয়ার বিক্রির চাপ বেশি দেখা যায়। দিন শেষে মোট লেনদেনে এ খাতের অংশগ্রহণ দেখা যায় ৩৩ শতাংশের বেশি। মোট লেনদেনে এর পরের অবস্থানে দেখা যায় ওষুধ ও রসায়ন খাতকে। দিন শেষে মোট লেনদেনে খাতটির অবদান পরিলক্ষিত হয় ১৩ শতাংশ। পরের অবস্থানে ছিল টেলিকমিউনিকেশন খাত। খাতটি গতকাল মোট লেনদেনে ১০ শতাংশ অবদান রাখতে সক্ষম হয়। অন্যান্য খাতের মধ্যে খাদ্য খাতের ৯ দশমিক ২৫ শতাংশ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ছয় দশমিক ৮৫ শতাংশ, আর্থিক খাতের ছয় দশমিক ৫৩ শতাংশ এবং বিমা খাতের পাঁচ দশমিক ৭৩ শতাংশ অবদান দেখা যায়।
অন্যদিকে গতকাল ডিএসইতে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আগের কার্যদিবসে লেনদেন ৪০০ কোটি টাকার ঘরে নেমে যায়। এদিন মোট লেনদেন হয় ৪৬৭ কোটি টাকা। সেখানে গতকাল দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৯১ কোটি টাকার।
এদিকে গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) বøক মার্কেটে ১৪টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির মোট সাড়ে ছয় কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ পাঁচ কোটি ৩১ লাখ ৬৩ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে গ্রামীণফোনের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২১ লাখ ৬৩ হাজার টাকার ব্র্যাক ব্যাংকের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ১৯ লাখ ৭২ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে রেনেটার।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..