দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা বাজার বিশ্লেষণ

লেনদেনে ওষুধ খাতের প্রাধান্য দর বৃদ্ধিতে ব্যাংক খাত

রুবাইয়াত রিক্তা: সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে পুঁজিবাজারে ইতিবাচক গতিতে লেনদেন হয়েছে। সূচক ও লেনদেনে ছিল ইতিবাচক গতি। বেশিরভাগ কোম্পানির দর অপরিবর্তিত থাকলেও কম-সংখ্যক কোম্পানির দরপতন হয়। গতকাল লেনদেনের পুরো সময়ে ছিল শেয়ার কেনার প্রবণতা। এজন্য সূচক ধীরে ধীরে ঊর্ধ্বমুখী হয়। গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ২৮ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। ৬৮ শতাংশের দর অপরিবর্তিত ছিল। মোট লেনদেনের প্রায় ৬০ শতাংশ হয়েছে ওষুধ ও রসায়ন এবং ব্যাংক খাতে। বাকি খাতগুলোতে খুব সামান্য পরিমাণে লেনদেন হয়। শেয়ার কেনার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি ছিল ব্যাংক খাতে। লেনদেন বেশি হয়েছে ওষুধ ও রসায়ন খাতে। এ খাতে অধিকাংশ কোম্পানির দর অপরিবর্তিত ছিল।

ওষুধ ও রসায়ন খাতে লেনদেন হয় মোট লেনদেনের ৩০ শতাংশ। এ খাতে ৫৩ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। দরপতন হয় মাত্র দুই কোম্পানির। বাকিগুলোর দর অপরিবর্তিত ছিল। ছয় কোটি ৯ লাখ টাকা লেনদেন হয়ে ওষুধ খাতের বহুজাতিক কোম্পানি রেনাটা শীর্ষে উঠে আসে। এর দর অপরিবর্তিত ছিল। স্কয়ার ফার্মার চার কোটি ৭১ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর অপরিবর্তিত ছিল। সেন্ট্রাল ফার্মার তিন কোটি ৭৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৫০ পয়সা। কোম্পানিটি দর বৃদ্ধিতে পঞ্চম অবস্থানে ছিল। ওরিয়ন ফার্মার তিন কোটি ৩৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর অপরিবর্তিত ছিল। ৯ দশমিক ৮৮ শতাংশ বেড়ে এসিআই ফরমুলা দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে। ব্যাংক খাতে লেনদেন হয় প্রায় ৩০ শতাংশ। এ খাতে ৮০ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। একমাত্র ইস্টার্ন ব্যাংক দরপতনে ছিল। পাঁচটির দর অপরিবর্তিত ছিল। সাউথইস্ট ব্যাংকের ছয় কোটি ৪৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৪০ পয়সা। মার্কেন্টাইল ব্যাংকের দুই কোটি ৮৫ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৫০ পয়সা। উত্তরা ব্যাংকের দুই কোটি ৫২ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর অপরিবর্তিত ছিল। আইএফআইসি ব্যাংকের দুই কোটি ৩৬ লাখ এবং প্রিমিয়ার ব্যাংকের দুই কোটি ১২ লাখ টাকা করে লেনদেন হয়। দুই ব্যাংকের দর ৪০ পয়সা করে বেড়েছে। সাত দশমিক ৮৬ শতাংশ বেড়ে এক্সিম ব্যাংক দর বৃদ্ধিতে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে আসে। তৃতীয় স্থানে থাকা স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের দর সাত দশমিক ৩১ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া ওয়ান ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় উঠে আসে। জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে ৪৭ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। দরপতন হয়েছে মাত্র একটির। বস্ত্র খাতের মতিন স্পিনিং ও আর্থিক খাতের উত্তরা ফাইন্যান্স দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় উঠে আসে।  

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..