কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

লেনদেন বাড়লেও উভয় বাজারে সূচকের পতন

নিজস্ব প্রতিবেদক: গতকাল সোমবার সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে উভয় বাজারে লেনদেন বাড়লেও সূচকের পতন হয়। বিশ্বব্যাপী করোনার (কভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি শেষে উভয় বাজারের লেনদেন শুরুর দ্বিতীয় দিনেই উভয় বাজারে বড় পতন হয়েছে। এদিন বেশিরভাগ শেয়ারের দর অপরিবর্তিত ছিল। তবে বাকি শেয়ারগুলোর মধ্যে অধিকাংশের দর কমায় সব কয়টি সূচকের পতন হয়। তবে লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় বেড়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল লেনদেনের শুরুতে শেয়ার কেনার চাপ ধারাবাহিকভাবে বাড়ার প্রেক্ষিতে সূচকও ধীরে ধীরে নি¤œমুখী হতে থাকে। শেষ পর্যন্ত সূচকের পতন অব্যাহত থাকে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৬০ দশমিক ৯৫ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৫০ শতাংশ কমে তিন হাজার ৯৯৯ দশমিক ৪৯ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ২১ দশমিক ৬৪ পয়েন্ট বা দুই দশমিক ২৭ শতাংশ কমে ৯২৯ দশমিক ৯৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ১৮ দশমিক ১৮ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৩৩ শতাংশ কমে এক হাজার ৩৪৭ দশমিক ১৮ পয়েন্টে স্থির হয়।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ১৯৭ কোটি ৭৬ লাখ ৭৭ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ১৪৩ কোটি ২৯ লাখ ২৬ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৫৪ কোটি ৪৭ লাখ ৫১ হাজার টাকা। এদিন চার কোটি ৪৯ লাখ ৪৫ হাজার ৩৫৪টি শেয়ার ৩৪ হাজার ৫৯৮ বার হাতবদল হয়। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন প্রায় চার হাজার কোটি টাকা কমে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ১২ হাজার ২৮৪ কোটি ২৪ লাখ ৪৭ হাজার টাকায়। 

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ওষুধ ও রসায়ন খাতের স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। কোম্পানিটির ২৬ কোটি ৩৯ লাখ ৭৩ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর কমেছে ১৫ টাকা ১০ পয়সা। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের ১৬ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে পাঁচ টাকা ১০ পয়সা। গ্রামীণফোনের ৯ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ১১ টাকা ৬০ পয়সা। এরপরের অবস্থানগুলোতে থাকা বেক্সিমকোর ছয় কোটি ১০ লাখ টাকার, ইন্দো বাংলা ফার্মার ছয় কোটি টাকার, সিলভা ফার্মার তিন কোটি ৮৮ লাখ টাকার, মুন্নু সিরামিকের তিন কোটি ৬০ লাখ টাকার, ওরিয়ন ফার্মার তিন কোটি ৫৫ লাখ, সেন্ট্রাল ফার্মার তিন কোটি ৪৮ লাখ, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্ল কোম্পানির তিন কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

৯ দশমিক ১৭ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল ফিনিক্স ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড। দেশ গার্মেন্টের শেয়ারদর পাঁচ দশমিক ৯৩ শতাংশ, বেক্সিমকো ফার্মার পাঁচ দশমিক ৩৯ শতাংশ, ফিনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের পাঁচ দশমিক ১৯ শতাংশ, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্সের চার দশমিক ৫২ শতাংশ, মেঘনা সিমেন্টের তিন দশমিক ৭১ শতাংশ, বাংলাদেশ সাবমেরিনের তিন দশমিক ৫৭ শতাংশ, ইন্দো বাংলা ফার্মার তিন দশমিক ৩১ শতাংশ, হামিদ ফেব্রিকসের তিন দশমিক ১৮ শতাংশ এবং এসিআই ফরমুলেশনসের দুই দশমিক ৪২ শতাংশ বেড়েছে।

অন্যদিকে ৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ দর কমে পতনের শীর্ষে উঠে আসে আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড। মিথুন নিটিংয়ের দর ৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের দর আট দশমিক ৪৩ শতাংশ, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের দর আট দশমিক ২৯ শতাংশ, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের দর আট দশমিক ১৯ শতাংশ, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের দর সাত দশমিক ৮৭ শতাংশ, স্কয়ার ফার্মার দর সাত দশমিক ৩৩ শতাংশ কমেছে। ন্যাশনাল ক্রেডিট অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের ছয় দশমিক ৯৭ শতাংশ, এবি ব্যাংকের ছয় দশমিক ৯৪ শতাংশ ও মতিন স্পিনিংয়ের ছয় দশমিক ৫৫ শতাংশ কমেছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৭৮ দশমিক ৯৩ পয়েন্ট বা এক দশমিক ১৩ শতাংশ কমে ছয় হাজার ৮৭৩ দশমিক ২১ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১২৭ দশমিক ৮৯ পয়েন্ট বা এক দশমিক ১১ শতাংশ কমে ১১ হাজার ৩৪১ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ১২৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ২৭টির, কমেছে ৩৪টির এবং ৬২টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৫ কোটি আট লাখ ৯৭ হাজার ৩২০ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল তিন কোটি ৩৫ লাখ ৭১ হাজার ৩১৭ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে প্রায় ৫২ কোটি টাকা।

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেড। কোম্পানিটির ৪৯ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। ভিএফএস থ্রেড ডায়িংয়ের এক কোটি ৩৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপরে বেক্সিমকোর ৮৩ লাখ টাকার, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের ৪৬ লাখ, বেক্সিমকো ফার্মার ৪৩ লাখ, সেন্ট্রাল ফার্মার ৩৮ লাখ টাকার, সিমটেক্সর ৩৫ লাখ টাকার, লাফার্জহোলসিমের ২০ লাখ টাকার, গ্রামীণফোনের ১৯ লাখ ও সিলভা ফার্মার ১৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..