দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা বাজার বিশ্লেষণ

লেনদেন বেড়েছে প্রকৌশল খাতে কমেছে বিমায়

রুবাইয়াত রিক্তা: টানা তিন কার্যদিবস ধরে দরপতন চলছে পুঁজিবাজারে। গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন সামান্য বাড়লেও সূচকের পতন অব্যাহত ছিল। তবে আগের দিনের তুলনায় দরপতনের হার কম ছিল। গতকাল লেনদেন বেড়েছে প্রকৌশল খাতে। অন্যদিকে লেনদেন কমেছে বিমা খাতে। বস্ত্র খাতেও সামান্য বেড়েছে লেনদেন। ছোট-বড় সব খাতে দরপতনের আধিক্য ছিল। লেনদেনের শীর্ষে ওঠার পাশাপাশি দরবৃদ্ধিতে এগিয়ে ছিল প্রকৌশল খাত।

গতকাল তিন শতাংশ বেড়ে প্রকৌশল খাতে লেনদেন হয় মোট লেনদেনের ১৮ শতাংশ বা ৫৩ কোটি টাকা। এ খাতে ৫৪ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। প্রায় ১৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়ে ন্যাশনাল টিউবস শীর্ষে উঠে এলেও দরপতন হয় ১৪ টাকা। ১৪ শতাংশ দর বেড়ে কপারটেক দরবৃদ্ধিতে তৃতীয় অবস্থানে ছিল। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির পরে কোম্পানিটি প্রথমবারের মতো ১২ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করে। এর মধ্যে সাত শতাংশ নগদ এবং পাঁচ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ। এছাড়া প্রায় ৯ শতাংশ বেড়ে কেঅ্যান্ডকিউ দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশের মধ্যে অবস্থান করে। এরপর ১৩ শতাংশ লেনদেন হয় বিমা খাতে। এ খাতে লেনদেন কমেছে পাঁচ শতাংশ। সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয়। দরপতন হয় এক টাকা ৪০ পয়সা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে লেনদেন হয় ১২ শতাংশ। এ খাতে ৩৬ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। স্কয়ার ফার্মার সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দরপতন হয় ৯০ পয়সা। সিলকো ফার্মার চার কোটি ৩৭ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা ৩০ পয়সা। ওয়াটা কেমিক্যালের চার কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দর বেড়েছে সাত টাকা ৮০ পয়সা। সাড়ে ৯ শতাংশ বেড়ে ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ দরবৃদ্ধিতে অষ্টম অবস্থানে উঠে আসে। এক শতাংশ বেড়ে বস্ত্র খাতে লেনদেন হয় ১১ শতাংশ। এ খাতে ৪০ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। ভিএফএস থ্রেড ডায়িং প্রায় পাঁচ কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দরপতন হয় ৯০ পয়সা। দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় শীর্ষে উঠে আসে আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি। দর বেড়েছে ২১ দশমিক ৩১ শতাংশ। কোম্পানিটি সবশেষ হিসাববছরে দুই শতাংশ নগদ ও আট শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। যার কারণে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদরে কোনো সীমা আরোপিত ছিল না। এছাড়া ইয়াকিন পলিমার, সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ ও স্টাইল ক্রাফট দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় উঠে আসে। সিরামিক খাতের মুন্নু সিরামিকের সাড়ে সাত কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে প্রায় ১১ টাকা। স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের সাড়ে চার কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৩৮ টাকা। বি ক্যাটেগরির স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের সাড়ে চার কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৩৮ টাকা। কোম্পানিটি পাঁচ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করায় গত দুদিনে শেয়ারটির দর ১২৪ টাকা ৩০ পয়সা বেড়েছে। চামড়াশিল্প খাতের লিগ্যাসি ফুটওয়্যারের প্রায় ছয় কোটি টাকা লেনদেন হয়, দরপতন হয় সাড়ে ১৬ টাকা। খাদ্য খাতের গোল্ডেন হার্ভেস্ট এগ্রোর সোয়া চার কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর কমেছে ১০ পয়সা।

ট্যাগ »

সর্বশেষ..