প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

শপথ নিলেন ফিলিপাইনের নতুন প্রেসিডেন্ট

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ফিলিপাইনের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন ফার্দিনান্দ রোমুয়াল্ডেজ মার্কোস জুনিয়র বংবং। খবর : নিক্কেই এশিয়া।

বংবং দেশটির প্রয়াত স্বৈরাচার ফার্দিনান্দ ইমানুয়েল এড্রলিন মার্কোসের ছেলে।

স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ম্যানিলার জাতীয় জাদুঘরে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে দেশি-বিদেশি শতাধিক প্রতিনিধি ও সাংবাদিকের উপস্থিতিতে শপথ নেন বংবং।

তার শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিদেশি ব্যক্তিদের মধ্যে চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াং খিশান ও যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের স্বামী ডগলাস এমহফ ছিলেন।

তার এই শপথ অনুষ্ঠানটিকে এশিয়ার সবচেয়ে বিখ্যাত রাজনৈতিক পরিবারগুলোর একটির দীর্ঘদিন পর রাজনীতিতে ফেরার উল্লেখযোগ্য ঘটনা হিসেবে দেখা হচ্ছে। ৩৬ বছর আগে গণরোষের মুখে শাসন ক্ষমতা থেকে তার পরিবারের পতন হয়েছিল।

৬৪ বছর বয়সী বংবং গত মাসে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছিলেন। দেশটিতে এমন নিরঙ্কুশ বিজয় সাধারণত দেখা যায় না। এই নির্বাচনকে তার পরিবারের ভাবমূর্তি ফেরানোর চেষ্টা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

বিশ্লেষকরা জানান, গত শতকের আশির দশকে তার বাবা ফিলিপাইনকে দুর্দশাগ্রস্ত করেছিলেন। এরপর বর্তমানে সবচেয়ে বাজে সময় যাচ্ছে দেশের অর্থনীতির। এই পরিবারের বিরুদ্ধে ব্যাপক দুর্নীতি ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ রয়েছে। প্রসঙ্গত, এক ঐতিহাসিক গণ-অভ্যুত্থানে বংবংয়ের বাবা স্বৈরশাসক ফার্দিনান্দ মার্কোসকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করা হয়। বংবং সপ্তদশ প্রেসিডেন্ট হিসেবে রদ্রিগো দুতার্তের স্থলাভিষিক্ত হলেন। প্রসিডেন্ট নির্বাচনে সাবেক সিনেটর বংবং মার্কোস তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে এক কোটি ৬০ লাখ ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে জয় নিশ্চিত করেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বর্তমান ভাইস প্রেসিডেন্ট লেনি রোব্রেদো। ২০১৬ সালে ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার কাছে হেরেছিলেন বংবং। তবে এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে সব জনমত জরিপে এগিয়ে ছিলেন তিনি।