বিশ্ব সংবাদ

শর্তসাপেক্ষে আন্তর্জাতিক উড়োজাহাজ চলাচল উম্মুক্ত করতে যাচ্ছে চীন

শেয়ার বিজ ডেস্ক: অবশেষ শর্তসাপেক্ষে সীমিত পর্যায়ে আন্তর্জাতিক উড়োজাহাজ চলাচল শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে চীনের কর্তৃপক্ষ। দেশটির বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ গত বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে বিদেশি যে ৯৫টি কোম্পানির উড়োজাহাজ চলাচল সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছিল, সীমিত পর্যায়ে আবার চীনে ফ্লাইট চালানোর জন্য সেগুলো আবেদন জানাতে পারে। খবর: পার্স টুডে।

চীনের কর্তৃপক্ষ বলেছে, আগামী ৮ জুন থেকে যাতে বিদেশি কোম্পানিগুলো চীনের বিভিন্ন রুটে তাদের ফ্লাইট চালাতে পারে, সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

চীনে বিদেশি বিমান পরিবহন সংস্থাগুলোর ফ্লাইট পরিচালনা করতে কিছু শর্ত মানতে হবে। এর মধ্যে রয়েছে এসব উড়োজাহাজ সংস্থা করোনা-আক্রান্ত কোনো রোগী বহন করতে পারবে না। যদি কোনো ফ্লাইটে পাঁচ বা ততোধিক করোনা-আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়, তাহলে ওই কোম্পানির উড়োজাহাজ পরবর্তী এক সপ্তাহের জন্য চীনে ফ্লাইট চালাতে পারবে না। আর করোনা-আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা যদি ১০ জন বা তার চেয়ে বেশি হয়, তাহলে এ নিষেধাজ্ঞা চার সপ্তাহের জন্য বলবৎ হবে।

চীন থেকে বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর বেইজিং কর্তৃপক্ষ গত মার্চ মাসের শুরুর দিকে সেদেশে বিদেশি উড়োজাহাজ চলাচল বন্ধ করে দেয়। তবে বিদেশে আটকে পড়া চীনা যাত্রীদের দেশে ফিরিয়ে আনতে কিংবা চীনে আটকে পড়া বিদেশি যাত্রীদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা শিথিল ছিল।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমে যাওয়ায় দেশি এয়ারলাইনসগুলোকে আবার চীনে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে বেইজিং। যুক্তরাষ্ট্রের দুটি আকাশসেবা সংস্থাও ১ জুন থেকে চীনে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি চেয়েছিল। কিন্তু শি জিনপিং প্রশাসন তা দেয়নি। এতে ক্ষেপে যায় ওয়াশিংটন। পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে চীনের এয়ারলাইনস কর্তৃক যুক্তরাষ্ট্রে যাত্রীবাহী ফ্লাইট পরিচালনা নিষিদ্ধ করে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। বুধবার জারি করা এক আদেশে বলা হয়, ১৬ জুন থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। তবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চাইলে নিষেধাজ্ঞা কার্যকরের সময় আরও এগিয়ে নিতে পারেন।

যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপের পর বিদেশি এয়ারলাইনস কর্তৃক চীনে ফ্লাইট পরিচালনার বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল করেছে বেইজিং। এ সিদ্ধান্ত ৮ জুন থেকে কার্যকর হবে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..