বিশ্ব সংবাদ

শিশুদের আগে গরিব দেশে টিকা দিন

ধনী দেশের প্রতি ডব্লিউএইচও’র আহ্বান

শেয়ার বিজ ডেস্ক: শিশু-কিশোরদের টিকা দেয়ার পরিকল্পনা পিছিয়ে আগে গরিব দেশগুলোকে টিকা সরবরাহ করতে ধনী দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। স্থানীয় সময় শুক্রবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এক ভার্চুয়াল সম্মেলনে এ আহ্বান জানিয়েছেন সংস্থাটির মহাপরিচালক টেড্রোস আধানোম গেব্রিয়াসিস। খবর: বিবিসি।

উন্নত দেশগুলোয় শিশু ও প্রাপ্তবয়স্কদের টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের ফলে গরিব দেশগুলোর টিকাদান কর্মসূচি ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, কিছু দেশ কেন শিশু ও প্রাপ্তবয়স্কদের টিকা দিতে চাইছে, সেটি আমি অনুধাবন করতে পারছি। কিন্তু নি¤œ ও নি¤œমধ্যম আয়ের দেশগুলোয় স্বাস্থ্যকর্মীদের দেয়ার মতোও যথেষ্ট পরিমাণ টিকা নেই। এসব দেশের হাসপাতালগুলোয়ও সুরক্ষা সরঞ্জামের অভাব রয়েছে। ফলে ধনী দেশগুলোর এখন বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করা প্রয়োজন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। এক পর্যায়ে উৎপত্তিস্থল চীনে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশে এর প্রকোপ বাড়তে শুরু করে। চীনের বাইরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ১১ মার্চ দুনিয়াজুড়ে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

করোনা ছড়িয়ে পড়ার এক বছরের মাথায় ২০২০ সালের ডিসেম্বরে প্রথমবারের মতো এর টিকা অনুমোদন পায়। তবে এসব টিকার বেশিরভাগই কিনে নেয় ধনী দেশগুলো। গরিব দেশগুলো পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন না পেলেও সরবরাহ মজুত করতে শুরু করে যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশগুলো।

সম্প্রতি ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সীদের ফাইজারের টিকা প্রয়োগের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ)। নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি বলছে, মহামারি মোকাবিলায় এটি একটি তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ।

যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত প্রায় ২৬ কোটি ডোজ টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে। তবে সম্প্রতি টিকার চাহিদা কমে গেছে। ফলে ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সীদের ওপর টিকা প্রয়োগের অনুমোদন দেয় কর্তৃপক্ষ।

এফডিএ কমিশনার জ্যানেট উডকক জানান, প্রাপ্ত সব ধরনের তথ্য-উপাত্ত ব্যাপকভাবে যাচাইয়ের পর এই অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

কানাডাতেও ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সী ছেলেমেয়েদের ফাইজারের টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সুইজারল্যান্ডের কয়েকটি স্থানে গত সপ্তাহে ১৬ বছর বয়সী ছেলেমেয়েদের টিকাদান কর্মসূচির আওতায় নিয়ে আসার প্রস্তাব করা হয়েছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..