প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

শীর্ষ ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জের বিনিয়োগ নিচ্ছে ফোর্বস

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ফোর্বস ম্যাগাজিনে ২০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করতে যাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ বাইন্যান্স। এজন্য বাইন্যান্সের সঙ্গে একটি নতুন চুক্তি করতে যাচ্ছে ফোর্বস। চুক্তি অনুযায়ী, ফোর্বস ম্যাগাজিনে ২০০ মিলিয়ন ডলার (১৪৭.৭ মিলিয়ন পাউন্ড) বিনিয়োগ করবে বাইন্যান্স। বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের তালিকা প্রকাশের জন্য পরিচিত মিডিয়া ব্র্যান্ড ফোর্বস বলছে, ডিজিটাল সম্পদবিষয়ক তথ্যের শীর্ষ সূত্র হিসেবে আত্মপ্রকাশে সহযোগিতা করবে বাইন্যান্সের সঙ্গে নতুন চুক্তি। খবর: বিবিসি।

বিশ্লেষকরা বলছেন, তারকা ব্যক্তিত্ব আর সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রচারণার বিপরীতে ক্রিপ্টো সম্পদের অবস্থা অনেকটাই নাজুক, তাদের প্রচারণা আর প্রকাশিত সংবাদ থেকে বড় প্রভাব পড়ে ক্রিপ্টোকারেন্সির বাজারে। এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলেছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বাজার পর্যবেক্ষকরা।

নতুন বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়ে এক বিবৃতিতে বাইন্যান্সের প্রতিষ্ঠাতা চ্যাংপেং ঝাও বলেছেন, ক্রিপ্টো বাজার ও উদীয়মান ব্লকচেইন প্রযুক্তির ‘ভোক্তাদের বোঝাপড়া ও শেখানোর জন্য একটি অপরিহার্য উপাদান’ হিসেবে মিডিয়াকে তিনি দেখছেন। চীনা বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান এ ধনকুবেরের সম্পদের আকার ১০ হাজার কোটি ডলার বলে ধারণা করা হয়। ফোর্বস ছাড়াও মূল ধারার অন্যান্য প্রতিষ্ঠানেও বাইন্যান্স বিনিয়োগের সুযোগ খুঁজছে বলে জানিয়েছেন ঝাও।

অন্যদিকে ফোর্বস বলছে, বাণিজ্য প্রকাশনাটিকে প্রযুক্তি পরামর্শ এবং ব্র্যান্ড বৃদ্ধিতে সহযোগিতা করবে ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জটি। প্রকাশিত সংবাদের ওপর নতুন চুক্তির কোনো প্রভাব পড়বে না বলে দাবি করেছে ফোর্বস। তবে বিদ্যমান ডিজিটাল সম্পদসংশ্লিষ্ট দল এবং অন্যান্য খাতের সংবাদকর্মীদের সহযোগিতা করবে এটি।

এ বিষয়ে ফোর্বস মুখপাত্র বিল হ্যাঙ্কেস বলেন, মালিকানায় যেই থাকুক না কেন, এক শতকেরও বেশি সময় ধরে নিজেদের স্বাধীনতা ধরে রেখেছে ফোর্বস এবং তাতে কোনো পরিবর্বতন আসবে না। আমাদের সাংবাদিকতার সততাই আমাদের ব্র্যান্ডের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ।

সংস্থাটি বলছে, ক্রিপ্টো শিল্পের এক গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে এলো নতুন এ বিনিয়োগের খবর। গত কয়েক বছরে বিটকয়েনসহ অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম বেড়েছে কয়েকশ গুণ। মূলধারার ব্যবসা খাতের সংশ্লিষ্ট হওয়ার চেষ্টা করছে ক্রিপ্টোকারেন্সিভিত্তিক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

বিবিসি জানিয়েছে, ওই চুক্তির জন্য ফোর্বসের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৩ কোটি ডলার। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে চুক্তির সব কাজ শেষ হয়ে আসার প্রত্যাশা করা হচ্ছে। চুক্তি সম্পন্ন হলে নতুন বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ৪০ কোটি ডলারের বিনিয়োগ পাবে ফোর্বস, যার অর্ধেক আসছে বাইন্যান্স থেকে।

এ প্রসঙ্গে ফোর্বসের প্রধান নির্বাহী মাইক ফেডেরলি বলছেন, ‘ব্লকচেইন প্রযুক্তি এবং সব উদীয়মান ডিজিটাল সম্পদ সম্পর্কে সহযোগিতামূলক তথ্য সরবরাহ এবং এ-সংক্রান্ত সব ‘রহস্য’ সমাধানে ফোর্বস প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।’