খবর

শুল্ক কমানোর দাবি বিড়ি ভোক্তাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি অর্থবছরের বাজেটে বিড়ির উপর বৃদ্ধিকৃত অতিরিক্ত ৪ টাকা শুল্ক কমানোর দাবিতে সিলেট কাস্টমস অফিস ঘেরাও করে মানববন্ধন করেছে বিড়ি ভোক্তারা । রোববার সিলেট মেন্দিবাগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানিয়েছে তারা। মানববন্ধনে সিলেট অঞ্চলের অর্ধসহস্রাধিক বিড়ি ভোক্তা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় ভোক্তারা বলেন, বিড়ি শিল্পের সাথে সমাজের অসহায় হত দরিদ্র, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা ও নদী ভাঙন কবলিত এলাকার মানুষ জড়িত। বিড়ির ভোক্তারাও সমাজের দরিদ্র শ্রেণীর। ধূমপান হিসেবে আমরা শুধু বিড়ি খেয়ে থাকি। আমরা অন্য কোন নেশার সাথে জড়িত নই। কিন্তু চলতি বাজেটে বিড়ির উপর মাত্রাতিরিক্ত শুল্ক বৃদ্ধি করা হয়েছে।

বিড়িতে প্যাকেট প্রতি যেখানে ৪ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে সেখানে নি¤œস্তরের সিগারেটে মাত্র ২ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এছাড়াও মধ্যমস্তরের সিগারেটে কোন শুল্ক বৃদ্ধি করা হয়নি। ফলে দেশী শিল্প ধ্বংস করে বিদেশী সিগারেট ধূমপানে উদ্বুদ্ধ করছে। আমরা এ বৈষম্যমূলক শুল্ক বৃদ্ধির তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মানববন্ধন থেকে পাঁচ দফা দাবি জানান বিড়ি ভোক্তারা। দাবিগুলো হলো- ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেটে বিড়ির উপর আরোপিত প্যাকেট প্রতি অতিরিক্ত ৪ টাকা শুল্ক প্রত্যাহার করতে হবে। সিগারেট যতদিন থাকবে বিড়িও ততদিন রাখতে হবে। নিম্নস্তরের সিগারেট প্যাকেট প্রতি ১০০টাকা করতে হবে। প্রতি প্যাকেট বিড়ি ১০ টাকা করতে হবে। নকল বিড়ির ব্যবসা বন্ধ করতে হবে।

মানববন্ধনে বক্তব্য প্রদান করেন সিলেট বিড়ি ভোক্তা পক্ষের সভাপতি মো: মসিয়ার রহমান, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, সিলেট শ্রমিক লীগের সভাপতি এনসান আলি। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন মো: সাহাবুদ্দিন। মানববন্ধন শেষে সিলেট কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট বরবার স্মারকলিপি প্রদান করেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..