শেয়ার বেচবেন কেডিএস অ্যাকসেসরিজের উদ্যোক্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রকৌশল খাতের কোম্পানি কেডিএস অ্যাকসেসরিজ লিমিটেডের উদ্যোক্তা খলিলুর রহমান শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্যমতে, খলিলুর রহমানের ধারণ করা মোট তিন কোটি ৬৯ লাখ ৩৮ হাজার ৪৫২টি শেয়ার থেকে ২০ লাখ শেয়ার বিক্রি করবেন। বর্তমান বাজারদরে আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে উল্লিখিত পরিমাণ শেয়ার বিক্রি করবেন।

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ ৩০ জুন, ২০২১ সমাপ্ত হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে দুই টাকা ২০ পয়সা। ৩০ জুন, ২০২১ তারিখে শেয়ারপ্রতি  নেট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২৪ টাকা ৭৫ পয়সা। এছাড়া এই হিসাববছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ছয় টাকা ৫৮ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৯ ডিসেম্বর বেলা ১১টায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে ২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে সাড়ে সাত শতাংশ নগদ ও সাড়ে সাত শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে কেডিএস অ্যাকসেসরিজ লিমিটেড। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে দুই টাকা ১৮ পয়সা, আর ২০২০ সালের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ২৪ টাকা ৯৯ পয়সা। ওই সময় শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে আট টাকা ১২ পয়সা।

এদিকে গতকাল ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ারদর পাঁচ দশমিক ৭৪ শতাংশ বা তিন টাকা ৯০ পয়সা কমে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ৬৪ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল ৬৪ টাকা। দিনজুড়ে চার লাখ ৪৯ হাজার ৭৯৫টি শেয়ার ৫৯৪ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর দুই কোটি ৮৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ৬৩ টাকা ৬০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৬৭ টাকা ৪০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ৩৯ টাকা ৯০ পয়সা থেকে ৮৪ টাকা ৪০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

প্রকৌশল খাতের এ কোম্পানিটি ২০১৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। ২০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৭১ কোটি ১৮ লাখ ২০ হাজার টাকা। কোম্পানির রিজার্ভের পরিমাণ ৮২ কোটি ২৭ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট সাত কোটি ১১ লাখ ৮২ হাজার ৩৬১ শেয়ার রয়েছে। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, কোম্পানির মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে ৭২ দশমিক ৮৭ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক পাঁচ দশমিক ৩৭ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে বাকি ২১ দশমিক ৭৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।


সর্বশেষ..