কোম্পানি সংবাদ

শেষার্ধে কেনার চাপে সূচক, শেয়ারদর ও লেনদেন ইতিবাচক

নিজস্ব প্রতিবেদক: উভয় পুঁজিবাজারে গতকাল ইতিবাচক গতিতে লেনদেন হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের প্রথমার্ধে সূচকের গতি স্থিতিশীল থাকলেও শেষার্ধে কেনার চাপ বেড়ে যায়। ফলে সূচকের উত্থান হয়। তবে বেলা সোয়া ১টার পর সূচক কিছুটা নেমে গেলেও শেষ পর্যন্ত প্রধান সূচকের ২৬ পয়েন্ট উত্থান হয়। সেইসঙ্গে বেড়েছে লেনদেন। গতকাল ডিএসইতে ৬৮ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে, কমেছে ২৬ শতাংশের দর। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ও শেয়ারদর বাড়লেও লেনদেন কমেছে।
বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬ দশমিক ৮১ পয়েন্ট বা দশমিক ৫২ শতাংশ বেড়ে পাঁচ হাজার ১৬০ দশমিক ৭৪ পয়েন্টে অবস্থান করে।
ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ১০ দশমিক ০৪ পয়েন্ট বা দশমিক ৮৫ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ১৮৬ দশমিক ৫২ পয়েন্টে অবস্থান করে। আর ডিএস৩০ সূচক চার দশমিক ৭৫ পয়েন্ট বা দশমিক ২৫ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৮৪৪ দশমিক ২৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন তিন লাখ ৮৬ হাজার ১৭৭ কোটি ৭৪ লাখ ২২ হাজার ৫৩০ টাকা হয়। ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় ৪৩৭ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪০৬ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ৩১ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। এদিন ১৪ কোটি ৪৫ লাখ ৫৯ হাজার ৯০৮টি শেয়ার এক লাখ ৩৩ হাজার ৪৮১ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৫৩ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৪২টির, কমেছে ৯৩টির ও অপরিবর্তিত ছিল ১৮টির দর।
গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ফরচুন সুজ। কোম্পানিটির প্রায় সাড়ে ১৯ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৬০ পয়সা। ইউনাইটেড পাওয়ারের ১৭ কোটি ৩০ লাখ টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দর কমেছে প্রায় ১০ টাকা। তৃতীয় অবস্থানে থাকা বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের সাড়ে ১৫ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর অপরিবর্তিত ছিল। স্কয়ার ফার্মার ১৩ কোটি টাকার, মুন্নু সিরামিকের সাড়ে ১২ কোটি টাকার, সিঙ্গার বিডির আট কোটি ৬৯ লাখ টাকার, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের প্রায় সাড়ে আট কোটি টাকার, জেএমআই সিরিঞ্জের সোয়া আট কোটি টাকার, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লসের আট কোটি টাকার ও বীকন ফার্মার প্রায় সাড়ে সাত কোটি টাকার লেনদেন হয়।
প্রায় ১০ শতাংশ বেড়ে দরবৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে দেশ গার্মেন্ট। মুন্নু সিরামিকের দর ৯ দশমিক ৮৩ শতাংশ, এসইএমএলএফবিএসএল গ্রোথ ফান্ডের দর ৯ দশমিক ৭৫ শতাংশ, সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের দর ৯ দশমিক ৭৪ শতাংশ, ইনটেকের দর ৯ দশমিক ৭২ শতাংশ, অ্যাপোলো ইস্পাতের দর ৯ দশমিক ৬১ শতাংশ, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের দর ৯ দশমিক ৫৪ শতাংশ, কাসেম ইন্ডাস্ট্রিজের দর আট দশমিক ৯১ শতাংশ, জেমিনি সী ফুডের দর আট দশমিক ৭৪ শতাংশ এবং ফু ওয়াং ফুডের দর আট দশমিক ৭৩ শতাংশ বেড়েছে।
অন্যদিকে ৯ দশমিক ২৭ শতাংশ কমে দরপতনের শীর্ষে উঠে আসে ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি মিউচুয়াল ফান্ড। এমারাল্ড অয়েলের দর আট দশমিক ৫২ শতাংশ কমেছে। এছাড়া ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি মিউচুয়াল ফান্ডের দর সাত দশমিক ৭৭ শতাংশ, এনসিসিবিএল মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ানের দর সাত দশমিক ৪০ শতাংশ, ইবিএল ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর ছয় দশমিক ৬৬ শতাংশ, ঢাকা ডায়িংয়ের দর ছয় দশমিক ৪৫ শতাংশ, এলআর গ্লোবাল মিউুচয়াল ফান্ডের দর পাঁচ দশমিক ৪০ শতাংশ, সিএপিএমবিডিবিএল মিউচুয়াল ফান্ডের দর পাঁচ দশমিক ২৬ শতাংশ, আইসিবি সোনালী ব্যাংক ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর চার দশমিক ৮৭ শতাংশ ও এক্সিম ব্যাংক ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর চার দশমিক ৭৬ শতাংশ কমেছে।
সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৪৭ দশমিক ১১ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৯ শতাংশ বেড়ে ৯ হাজার ৫৯৮ দশমিক ৩০ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৭৮ দশমিক ১৮ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৯ শতাংশ বেড়ে ১৫ হাজার ৭৯৪ দশমিক ৯৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২৭৬টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৯টির, কমেছে ৭৫টির ও অপরিবর্তিত ছিল ২২টির দর।
সিএসইতে এদিন ২০ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ২০ কোটি ৯৫ লাখ ৫৫ হাজার ৯১০ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ৫৫ লাখ ৫৪ হাজার টাকা। সিএসইতে গতকাল লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে এসকে ট্রিমস। কোম্পানিটির এক কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপর পিপলস ইন্স্যুরেন্সের এক কোটি ৪৫ লাখ টাকার, ডরিন পাওয়ারের এক কোটি ২১ লাখ টাকার, সী পার্ল রিসোর্টের ৬৫ লাখ টাকার, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের ৫৭ লাখ টাকার, বিএসসিসিএলের ৫১ লাখ টাকার, এমারাল্ড অয়েলের ৪৮ লাখ টাকার, বিএটিবিসি’র ৪৩ লাখ টাকার ও মুন্নু সিরামিকের ৪১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..