প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

শ্রীলঙ্কায় দুই সপ্তাহ পেট্রল ডিজেল বিক্রি বন্ধ

শেয়ার বিজ ডেস্ক: চরম অর্থনৈতিক সংকটে থাকা শ্রীলঙ্কায় আগামী দুই সপ্তাহে স্বাস্থ্যসেবা ও খাদ্যপণ্য সরবরাহের কাজে নিয়োজিত পরিবহন ছাড়া আর কোনো ধরনের যানবাহনের জন্য জ্বালানি বিক্রি করা যাবে না। খবর: কলম্বো পেজ।

এরই মধ্যে দেশটির রাজধানী কলম্বোসহ শহর এলাকায় স্কুল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। জ্বালানি সাশ্রয়ে কর্মীদের ঘরে বসে অফিসের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

গত সোমবার শ্রীলঙ্কা সরকার এক ঘোষণায় জানায়, আগামী ১০ জুলাই পর্যন্ত বেসরকারি পরিবহনের পেট্রল ও ডিজেল কেনায় নিষেধাজ্ঞা দেয়া হলো। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়,জ্বালানির যে মজুত অবশিষ্ট রয়েছে, তা গতকাল শেষ হওয়ার কথা।

মন্ত্রিসভার এক মুখপাত্র বান্দুলা গুনেবর্ধনা জানান, স্বাধীন শ্রীলঙ্কা তার ইতিহাসে আর কখনও এতটা ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে পড়েনি।

বৈদেশিক মুদ্রার মজুত-সংকটে জ্বালানি ও খাদ্য আমদানি করতে পারছে না দ্বীপরাষ্ট্র। এ পরিস্থিতি থেকে উদ্ধারের জন্য ঋণ নিয়ে দাতা সংস্থার সঙ্গে আলোচনা চলছে। পরিস্থিতি উত্তরণে মূল্যছাড়ে জ্বালানি কেনার জন্য বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ দুই তেল উৎপাদনকারী দেশ রাশিয়া ও কাতারে সরকারি প্রতিনিধিদল পাঠিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

গত রোববার ডিজেলের দাম ১৫ শতাংশ বাড়িয়ে প্রতি লিটার ৪৬০ রুপি (১ দশমিক ২৭ ডলার) ও পেট্রলের দাম ২২ শতাংশ বাড়িয়ে ৫৫০ রুপি (১ দশমিক ৫১ ডলার) করা হয়।

এর আগে গত শনিবার জ্বালানিমন্ত্রী কাঞ্চনা ভিজেসেকেরা বলেন, জ্বালানির নতুন চালান পেতে অনির্দিষ্টকাল দেরি হতে পারে। মোটরযানচালকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে তিনি অনুরোধ করেন, তারা যেন জ্বালানি স্টেশনের সামনে ভিড় না করেন। তবে জ্বালানির আশায় ফিলিং স্টেশনের সামনের লাইন দীর্ঘ হচ্ছে।