সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে সূচকের টানা পতন, ৮০০ কোটিতে নেমেছে লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল বৃহস্পতিবার চলতি সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসেও সিংহভাগ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিটদর কমায় সূচক পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। এবং পুরো সপ্তাহজুড়ে সূচকের পতন হলো এছাড়া আগের কার্যদিবসের তুলনায় গতকাল লেনদেন ২৭৯ কোটি ৭৭ লাখ টাকা কমে হাজার ৮০০ কোটি টাকার ঘরে নেমেছে লেনদেন। বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গতকাল প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৬৫ দশমিক ৮২ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৯৫ শতাংশ কমে ছয় হাজার ৮৫২ দশমিক শূন্য আট পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ৯ দশমিক ৬২ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৬৬ শতাংশ কমে এক হাজার ৪৪২ দশমিক ৩৮ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ২৮ দশমিক ৫০ পয়েন্ট বা এক দশমিক শূন্য আট শতাংশ কমে দুই হাজার ৬০২ দশমিক ৮৯ পয়েন্টে স্থির হয়।

ডিএসইতে এদিন মোট ৩৬২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৮৯টির এবং কমেছে ২৪১টির। বাকি ৩২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ৮৪৯ কোটি ৭৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ১২৯ কোটি ৫৫ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে গতকাল লেনদেন কমেছে ২৭৯ কোটি ৭৭ লাখ টাকা।

ডিএসইতে এদিন ২৫ কোটি ১৫ লাখ ৪০ হাজার ৬৭২টি শেয়ার এক লাখ ৪০ হাজার ৯২০ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পতনের চিত্র দেখা গেছে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড (বেক্সিমকো)। কোম্পানিটির ১১৭ কোটি ৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর তিন টাকা ৬০ পয়সা কমেছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের ৬০ কোটি ২৭ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর ৪০ পয়সা বেড়েছে। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০-এ থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল লিমিটেডের ৪৪ কোটি ৮৬ লাখ, আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের ৩৭ কোটি ৪৪ লাখ, জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেডের ৩৫ কোটি ৫৬ লাখ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ২৭ কোটি ৫৫ লাখ, ফরচুন শুজ লিমিটেডের ২৬ কোটি ৭৭ লাখ, এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের ২১ কোটি ৩৬ লাখ টাকার, সাইফ পাওয়ারটেকের ১৪ কোটি ৫৮ লাখ এবং ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ১৩ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

এদিকে ৯ দশমিক ৯৪ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। এর পরের অবস্থানে থাকা এক্মি পেস্টিসাইডস লিমিটেডের ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ, সুহƒদ ইন্ডাস্ট্রিজের ৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং লিমিটেডের ছয় দশমিক ৬৯ শতাংশ, নিউ লাইন ক্লথিংসের ছয় দশমিক শূন্য চার শতাংশ, দেশ গার্মেন্ট লিমিটেডের পাঁচ দশমিক ৮৬ শতাংশ, আমান ফিডের পাঁচ দশমিক ১৬ শতাংশ এবং জেমিনি সি ফুডের চার দশমিক ৯৩ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ১৩০ দশমিক শূন্য দুই পয়েন্ট বা এক দশমিক শূন্য ছয় শতাংশ কমে ১২ হাজার ৬০ দশমিক ২৬ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২১১ দশমিক ৬৩ পয়েন্ট বা এক দশমিক শূন্য চার শতাংশ কমে ২০ হাজার ৫৮ দশমিক ১২ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৬০টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৫৫টির, কমেছে ১৮২টির এবং ২৩টির দর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল সিএসইতে লেনদেন হয় ৩৫ কোটি ৫৪ লাখ টাকার, এর আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৫৮ কোটি ৬০ লাখ টাকা।


সর্বশেষ..