কোম্পানি সংবাদ

সপ্তাহের ব্যবধান: ডিএসইর দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ১৬.০১ শতাংশ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : সপ্তাহের ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে। গত সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবস লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে তিন দিন সূচক বেড়েছে এবং দুদিন কমেছে। সপ্তাহ শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক বেড়েছে ১২ দশমিক ৭৬ শতাংশ। গত সপ্তাহে ডিএসইতে টার্নওভার আগের সপ্তাহের তুলনায় কমেছে ১৬ দশমিক শূন্য এক শতাংশ। দৈনিক গড় লেনদেনও আগের সপ্তাহের চেয়ে কমেছে ১৬ দশমিক শূন্য এক শতাংশ। বাজার মূলধন  বেড়েছে দশমিক শূন্য চার শতাংশ। সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৩৩৩টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩০টির, কমেছে ১৭২টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৮টি কোম্পানির শেয়ারদর। লেনদেন হয়নি তিনটির।

অন্যদিকে সিএসইতে ২৭৮টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ১৫১টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৯টি কোম্পানির শেয়ারদর।

এদিকে গত সপ্তাহে ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৫৭৬ কোটি ৬৩ লাখ ৯৬ হাজার ৪২৭ টাকা। আগের  সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ৬৮৬ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ৭৯০ টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ১০৯ কোটি ৯২ লাখ ৫৭ হাজার ৩৬৩ টাকা বা ১৬ দশমিক শূন্য এক শতাংশ।

অন্যদিকে গত সপ্তাহে ডিএসইর মোট টার্নওভারের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৮৮৩ কোটি ১৯ লাখ ৮২ হাজার ১৩৪ টাকা। আগের সপ্তাহে যা ছিল তিন হাজার ৪৩২ কোটি ৮২ লাখ ৬৮ হাজার ৯৫১ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে টার্নওভার কমেছে ৫৪৯ কোটি ৬২ লাখ ৮৬ হাজার ৮১৭ টাকা বা ১৬ দশমিক শূন্য এক শতাংশ।

ডিএসইতে গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার বাজার মূলধন ছিল তিন লাখ ৭৩ হাজার ৫৬৩ কোটি ৭২ লাখ ৫১ হাজার ৯৪১ টাকা। শেষ কার্যদিবসে যার পরিমাণ ছিল তিন লাখ ৭৩ হাজার ৭১৭ কোটি ১১ লাখ ৯৪ হাজার ৩৯০ টাকা। সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন বেড়েছে  শূন্য দশমিক শূন্য চার শতাংশ।

ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের সপ্তাহের চেয়ে ১২ দশমিক ৭৬ পয়েন্ট বা দশমিক ২৩ শতাংশ বেড়ে গত সপ্তাহের শেষ দিন পাঁচ হাজার ৫৩৪ দশমিক ৪২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এছাড়া শরিয়াহ্ সূচক ডিএসইএস এক দশমিক ৭০ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ২৭৩ দশমিক ৯৪ পয়েন্টে এবং ডিএস ৩০ সূচক ১৫ দশমিক ৭২ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ৩৪ দশমিক ৭২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) এক সপ্তাহে সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স বেড়েছে দশমিক ৩৭ শতাংশ। এছাড়া সিএএসপিআই সূচক বেড়েছে দশমিক ৩৭ শতাংশ, সিএসই৫০ সূচক দশমিক ৪১ শতাংশ এবং সিএসআই শরিয়াহ্ সূচক দশমিক ২৮ শতাংশ। অন্যদিকে সিএসই৩০ সূচক কমেছে দশমিক ২৮ শতাংশ।

সিএসইতে গত সপ্তাহে টার্নওভারের পরিমাণ দাঁড়ায় ১৮৯ কোটি ৯০ লাখ ৩১ হাজার ৯৮৭ টাকা, যা আগের সপ্তাহের চেয়ে কমেছে ৬১৫ কোটি ৪৭ লাখ ৪১২ টাকা। আগের সপ্তাহে টার্নওভার ছিল ২৫১ কোটি ৪৫ লাখ দুই হাজার ৪০০ টাকা।

গত সপ্তাহেও ডিএসইর টপ টেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে প্রাইম ইন্স্যুরেন্স। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ারদর ২৯ টাকা শূন্য ৯ পয়সা বেড়েছে। তালিকায় এর পরের অবস্থানগুলোয় ছিল প্রিমিয়ার লিজিং, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, সালভো কেমিক্যাল, ইসলামী ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক।

অন্যদিকে ১১ দশমিক ১৮ শতাংশ দর কমে ডিএসইতে টপ টেন লুজার তালিকার শীর্ষে চলে আসে এফএএস ফিন্যান্স। এর পর ছিল তুং হাই নিটিং, ন্যাশনাল পলিমার, ওয়ান ব্যাংক, এশিয়া প্যাসিফিক, আইসিবি এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ড ফান্ড, সিটি ব্যাংক, সুহƒদ ইন্ডাস্ট্রিজ, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক।

ডিএসইতে টার্নওভারের দিক থেকে শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলোÑলংকাবাংলা ফিন্যান্স, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, প্রাইম ব্যাংক, বেক্সিমকো, রতনপুর স্টিল রি-রোলিং, রিজেন্ট টেক্সটাইল, আইডিএলসি ফাইন্যান্স, শাহজিবাজার পাওয়ার, বিডিকম, বেক্সিমকো ফার্মা।

সিএসইতে সাপ্তাহিক টপ টেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসা কোম্পানির মধ্যে রয়েছে বিডিকম অনলাইন, বিডি ফাইন্যান্স, ইসলামিক ফাইন্যান্স, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স, তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, শাহজিবাজার পাওয়ার, আইসিবি এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ড মিউচুয়াল ফান্ড, ডেসকো, রূপালী ব্যাংক, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স।

 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..