মত-বিশ্লেষণ

সর্বস্তরে বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিত হোক

পাঠকের চিঠি

দ্বি-জাতিতত্ত্বের ভিত্তিতে পাকিস্তান রাষ্ট্র  প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর থেকে পশ্চিম পাকিস্তানের শাসকগোষ্ঠী কর্তৃক পূর্ব পাকিস্তান তথা বাংলার মানুষ রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বৈষম্যের শিকার হয়। তারই ধারাবাহিকতায় পাকিস্তানের শাসকরা সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের মুখের ভাষা বাংলা হওয়া সত্ত্বেও বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে মেনে নিতে পারেনি। এমনকি বাংলা ভাষা সংস্কারের অপচেষ্টা করতেও লজ্জাবোধ করেনি পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় শাসকগোষ্ঠী। বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে বাঙালির মুখের ভাষা কেরে নিয়ে তারা আঘাত করতে চেয়েছিল বাংলা সংস্কৃতির ওপর। কিন্তু তারা সফল হতে পারেনি। বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমে আসে বাংলার ছাত্র-জনতা। ২১ ফেব্রুয়ারি ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই স্লোগানে ছাত্ররা মিছিল বের করলে পুলিশ নির্বিচারে গুলি চালায়। এতে শহীদ হন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারসহ নাম না জানা অনেকেই। রক্তের অক্ষরে লেখায় হয় বাঙালির জাতীয় জীবনে আরেকটি ইতিহাস। পরবর্তীতে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী বাংলাকে রাষ্ট্রভাষার মর্যাদা দিতে বাধ্য হয়। বাঙালি পায় তাদের প্রিয় মাতৃভাষা। কিন্তু পরিতাপের বিষয় হলো, রক্তের বিনিময়ে পাওয়া বাংলা ভাষার ব্যবহার আমরা জাতীয় জীবনের সর্বস্তরে নিশ্চিত করতে পারিনি। শুধু তাই নয়,  বিদেশি ভাষার সঙ্গে বাংলাকে মিশিয়ে ফেলা হচ্ছে। নেই বাংলা ভাষার বিকৃতি রোধে দৃশ্যমান কোনো ব্যবস্থা। দিন দিন অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের ইংরেজি মাধ্যম শিক্ষার দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। ফলে বাংলা মাধ্যম শিক্ষার কদর হ্রাস পাচ্ছে। এতে বাংলা সংস্কৃতির স্থান দখল করে নিচ্ছে পশ্চিমা সংস্কৃতি; যা জাতির জন্য একটি অশনিসংকেতও বটে। সংবিধানের তৃতীয় অনুচ্ছেদে বলা হয়েছেÑপ্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্র ভাষা বাংলা। কিন্তু আমরা কি উচ্চশিক্ষা,  অফিস-আদালত কিংবা অন্যান্য সেক্টরে বাংলা ভাষার ব্যবহার শতভাগ নিশ্চিত করতে পেরেছি? সোজা উত্তর হলোÑনা। যে ভাষার জন্য বাঙালি জীবন উৎসর্গ করল সে ভাষা জীবিকার ভাষা হলো না। যে কারণে মানুষ বাংলা ভাষার চর্চা বাদ দিয়ে বিদেশি ভাষার দিকে ঝুঁকছে। ভাষার মাস চলছে। আমরা চাই আমাদের প্রিয়া মাতৃভাষা বাংলার ব্যবহার অফিস-আদালত থেকে শুরু করে প্রতিটি সেক্টরে শতভাগ নিশ্চিত হোক।

মারুফ হোসেন

শিক্ষার্থী, ধর্মতত্ত্ব অনুষদ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..