দিনের খবর মত-বিশ্লেষণ

সহিংসতা ও শোষণ থেকে রক্ষা

জ্ঞান ও কমিউনিটিভিত্তিক কার্যক্রম শিশুদের সুরক্ষা দিতে পারে। শিশুর সুরক্ষার জন্য প্রণীত আইন এখনও পুরোপুরি বাস্তবায়ন হচ্ছে না। বিশ্বজুড়েই শিশুরা নানা ধরনের সহিংসতার শিকার হয়। যৌন হয়রানি, সহিংস আক্রমণ, শারীরিক শাস্তি, মানসিক নির্যাতন ও অবহেলা এর যে কোনোটা ঘটতে পারে তার সঙ্গে।

বাংলাদেশেও শিশুরা এমন অনাচারের শিকার হয় ব্যক্তিগত বা সরকারি অফিসে, বাড়িতে, স্কুলে, রাস্তায়, কর্মস্থলে ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে তাদের সঙ্গে এমন আচরণ করা হয়ে থাকে।

শিশুর সুরক্ষা আইন এখনও পুরোপুরি বাস্তবায়ন হয়নি। শিশুদের জন্য যেসব সেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে, সেগুলোতে মান ও সমতার ঘাটতি রয়ে গেছে। শিশুর সুরক্ষায় যেসব প্রতিষ্ঠানের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার কথা সেগুলোতেও পর্যাপ্ত লোকবল ও অর্থ বরাদ্দ হয় না।

বাংলাদেশে শিশুদের এখনও দেখা হয় রক্ষণশীল সামাজিক রীতি ও দৃষ্টিভঙ্গিতে, যাতে গুরুতর অধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটতে পারে। সহিংসতা, যৌননিপীড়ন, শিশুশ্রম, বাল্যবিয়ে এবং মানসিকভাবে হয়রানি এখনও অহরহ ঘটছে। শিশুর প্রতি সহিংসতার ক্ষেত্রে দারিদ্র্য একটি বড় ভূমিকা রাখে।

যৌন নির্যাতনের ঘটনাগুলো ধরাটা বেশ কঠিন। সামাজিক সংস্কার আর প্রভাবশালীদের চক্ষুশূল হওয়ার ভয়ে এমন অপরাধও চাপা পড়ে যায়। অধিকাংশ মা-বাবা আইন ও শিশুর সুরক্ষা সেবাগুলো সম্পর্কে ভালো ধারণা নেই। বাংলাদেশে নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে আইন আছে। তবে তা যৌন হয়রানির ঘটনাকে আমলে নেয় না। অথচ যৌন হয়রানির প্রবণতা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। অনেক ক্ষেত্রে কিশোরীরা আত্মহত্যা করে অথবা আরও সহিংসতার শিকার হয়।

প্রতিবন্ধী শিশুদের নিপীড়নের বিষয়ে তেমন পরিসংখ্যান না থাকলেও যতটুকু তথ্য পাওয়া যায় তাতে এটা স্পষ্ট যে, প্রতিবন্ধী মেয়েদের ওপর যৌন সহিংসতা ক্রমেই বাড়ছে। খুব ছোট শিশুদের বিপজ্জনক কাজে লাগানো হচ্ছে। ১৭ লাখ শিশু, যাদের বেশিরভাগই ছেলে, তারা শিশু শ্রম দিচ্ছে। অনেক মেয়েই ঘরকন্নার কাজে জড়িত থাকে।

কিশোরী মেয়েরা অনেক সময়ই ঘরে সহিংসতার পাশাপাশি যৌন হয়রানির শিকার হয়। তারা এক ধরনের গৃহ দাসত্বের কবলে পড়ে। বলাই বাহুল্য, এরা শিক্ষা থেকেও বঞ্চিত।

এদিকে ১৫ বছরের কম বয়সী মেয়েদের বিয়ের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বিশ্বের প্রথম স্থানে রয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে সৃষ্ট প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণেও এই বয়সের মেয়েদের বাল্যবিয়ে ও মানব পাচারকারীদের কবলে পড়ার ঝুঁকি তৈরি হচ্ছে।

ইউনিসেফের তথ্য অবলম্বনে

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..