প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সাংবাদিক এমদাদুল হকের ‘কিপ্টা শ্বশুর’ নাটকে এনিলা তানজুম

প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার : সাংবাদিক ও তরুন নির্মাতা এমদাদুল হক খানের পরিচালনায় তিনটি খণ্ড নাটকের চিত্রধারণ করা হয়েছে চায়ের রাজধানী খ্যাত মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে। তিনটি নাটকের একটি আরিহা চৌধুরীর লেখা ‘কিপ্টা শ্বশুর’। এটি প্রচার হবে বেসরকারি টেলিভিশন এনটিভিতে।

কিপ্টা শ্বশুর নাটকে অভিনয় করেছেন মডেল ও অভিনেত্রী এনিলা তানজুম ও তার স্বামী চরিত্রে জনপ্রিয় অভিনেতা আ খ ম হাসান। আরও দুটি নাটক হচ্ছে- হারুন রুশো রচিত শামস বন্ড জিরো জিরো সেভেন এবং অয়ন চৌধুরী রচিত বিরহের কাঁটা।

গত ১৮ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর শ্রীমঙ্গলের মনোরম লোকেশনে নাটক তিনটির চিত্রধারণ করা হয়। শহরের গ্রীণলিফ গেস্ট হাউস ও চা বাগানসহ বিভিন্ন স্পটে নাটকগুলোর দৃশ্য ধারণ করা হয়।

তিনটি খণ্ড নাটকে অভিনয় করেন শালহা খানম নাদিয়া (নাদিয়া নদী), সুদীপ বিশ্বাস দ্বীপ, নিঝুম রুবিনা, তন্ময় সোহেল, জুয়েল হাসান, শারমিন সুলতানা শর্মি, এমকে পামির, তাসনিয়া, ফারুক আহমেদ বাপ্পী প্রমুখ।

নাটক সম্পর্কে নির্মাতা এমদাদুল হক খান শেয়ার বিজকে জানান, ‘নাটক তিনটির একটি হলো- কিপ্টা শ্বশুর যার পুরো গল্প কিপ্টে প্রকৃতির এক শ্বশুরকে নিয়ে। যেমন জামাই বাড়িতে আসে, জামাইয়ের সাথে কৃপণতা করেন। কিন্তু কৃপণতা করার কারণ হলো উনার চাচাতো ভাই, চাচা থাকে অসুস্থ। চাচা অসুস্থ থাকাকালীন চাচাতো ভাইকে মানুষ করতে গিয়ে সম্পূর্ণ টাকা পয়সা সে ব্যয় করে। চাচা-চাচি মানুষ করছিল সন্তানের মতো করে। কিন্তু সবশেষে জানায় যে, কিপ্টামি করছে তাঁদের জন্য। নিজের সংসার থেকে টাকা বাচিয়ে তার চাচা-চাচির সংসারে ব্যয় করে। যেমন বাড়িতে জামাই আসছে, জামাইয়ের জন্য ডিম কিনতে যায়, দেখে ডিমের হালি ৪০ টাকা আর ভাঙা ডিম আছে সেটা ৩০ টাকা। তখন শ্বশুর বলে তাহলে আমাকে ভাঙা ডিমই দেন। তারপর মেয়ে ভাঙা ডিম দেখে বকাঝকা করে, জামাইকে ভাত খেতে দেয় শুধু ডাল দিয়ে। জামাই খুব মাইন্ড করে। তখন শ্বশুর জামাইকে বলে মনে করো তুমি মাছ-মাংস দিয়ে কল্পনায় খাচ্ছো। এরকম অনেক কৃপণতা করে মেয়ের জামাইয়ের সাথে। আর শ্বশুর বাড়ির সকল কিপ্টামির বিষয়ের উপরই নির্মিত নাটক কিপ্টা শ্বশুর।’