প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে নবাবগঞ্জে মানববন্ধন

সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে নবাবগঞ্জে মানববন্ধন

প্রতিনিধি, নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) : পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় একটি ক্লিনিকে ইনডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিক হাসান মিসবাহ ও সাজু মিয়াকে আটক করে মারধরের ঘটনার প্রতিবাদে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে মানববন্ধন করেছে নবাবগঞ্জবাসী।

আজ রোববার (১৪ আগস্ট) সকাল ১১টায় দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিভিন্ন গণমাধ্যমের সংবাদকর্মী, সাংবাদিক সংগঠনসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেয়।

সমাবেশে বক্তারা রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের এসপিএ রিভারসাইড মেডিকেল সেন্টারে অনিয়মের সংবাদ সংগ্রহের সময় ওই দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। মানববন্ধন থেকে সাংবাদিকদের দুই ঘণ্টা আটকে রেখে মারধরের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানানো হয়।

সমাবেশে উপস্থিত সাংবাদিকরা বলেন, সাংবাদিকের সুরক্ষার সঙ্গে সাংঘর্ষিক সব আইন বাতিল করতে হবে। সমাবেশে প্রস্তাবিত গণমাধ্যমকর্মী আইনেরও সমালোচনা করা হয়।

নবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, হামলায় গুরুতর আহত হাসান মিসবাহ হাসপাতালের বিছানায় যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন। ওই ক্লিনিকের অনিয়ম তুলে ধরতে গিয়ে মেধাবী এই সাংবাদিকের জীবন আজ ঝুঁকির মুখে। এ ধরনের অপকর্ম চলতে থাকলে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা দিন দিন সংকুচিত হয়ে পড়বে।

তিনি আরও বলেন, এই ন্যক্কারজনক হামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত সব অপরাধী ক্লিনিক মালিক, কর্মচারীসহ যারা যারা হামলার সঙ্গে জড়িত ছিল, সিসিটিভি ফুটেজ অনুযায়ী সবাইকে শনাক্ত করে দ্রুত বিচারের আওতায় আনতে হবে। তাহলেই আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হবে। ভবিষ্যতে এ ধরনের যে কোনো ঘটনা ঘটাতে আর সাহস পাবে না কেউ।

উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি রুহুল আমিন প্রধান বলেন, আমরা জেনেছি অনুমোদন না থাকায় ইতোমধ্যে ওই ক্লিনিককে বন্ধ করে দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এখন ওই ক্লিনিকের মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। ভুয়া চিকিৎসকের অভিযোগ আমলে নিয়ে তদন্ত করতে হবে। এছাড়া হামলার ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত পুলিশের এসআই মিলন হোসেনকে সাময়িক বহিষ্কার করলেই হবে না, বিভাগীয় ব্যবস্থার মাধ্যমে তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করতে হবে।

মানববন্ধন ও সমাবেশে একাত্তর টিভির উপজেলা প্রতিনিধি সুলতান মাহমুদ, দৈনিক দেশ বার্তার প্রতিনিধি অলিউর রহমান মিরাজ, ডেইলি সান প্রধিনিধি রোকনুজ্জামান রোকন, চ্যানেল এস-এর প্রতিনিধি আজিনুর রহমান রাজু ও দৈনিক এশিয়াবাণীর প্রতিনিধি ফরিদুল ইসলাম রাজুসহ অন্যান্য গণমাধ্যমকর্মী উপস্থিত ছিলেন।