স্পোর্টস

সাইফের ডাবল সেঞ্চুরি রান পাহাড়ে ঢাকা

ক্রীড়া প্রতিবেদক: কয়েক দিন আগেই বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন সাইফ হাসান। সে রেশ এখনও কাটেনি পুরোপুরি। তার আগেই গতকাল চট্টগ্রামে ঢাকা বিভাগের হয়ে রংপুর বিভাগের বিপক্ষে এ ওপেনার খেলেছেন দুর্দান্ত ইনিংস। উপহার দিয়েছেন ডাবল সেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত এ তরুণ তারকা অপরাজিত থেকেই রান পাহাড়ে তুলেন ঢাকাকে।

জাতীয় লিগের টায়ার ওয়ান ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে গতকাল সাইফের ডাবল সেঞ্চুরিতে ভর করে ঢাকা বিভাগ ৮ উইকেটে ৫৫৬ রানের পাহাড় গড়ে ইনিংস ঘোষণা দেয়। পরে দিন শেষ হওয়ার আগে রংপুরের ৭১ রানের মধ্যে ২টি উইকেট তুলে নেয় দলটি। সে হিসেবে এ ম্যাচে অনেক এগিয়ে নাদিফ চৌধুরীরা।

একদিন আগের সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছিলেন সাইফ। পরে অবশ্য এ ডানহাতি অসুস্থতায় মাঠ ছেড়েছিলেন ১২০ রান নিয়ে। গতকাল ম্যাচের প্রথম ঘণ্টায় নাইটওয়াচম্যান সুমন খান আউট হওয়ার পর সাইফ আবার নামেন উইকেটে। এরপর অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরীকে নিয়ে শতরানের জুটি গড়েন সাইফ। জুটিতে আগ্রাসী ছিলেন নাদিফই। শেষ পর্যন্ত ৭৫ বলে ৬১ রান করে নাদিফ ফেরার পর জয়রাজ শেখকে নিয়েও এগিয়ে যান সাইফ। সঞ্জিত সাহার স্পিনে জয়রাজ ফিরলে নাজমুল ইসলামকে একপাশে রেখে রান বাড়ান সাইফ। সে ধারাবাহিকতায় চা বিরতির পর তিনি তুলে নেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি।

সাইফ সেঞ্চুরি তুলতে বল খেলেছিলেন ১৪৫টি। গতকাল সে ইনিংসকে এ ডানহাতি ডাবলে রূপ দেন ৩১৬ বলে। তার ইনিংসে সে সময় ছিল ১৮টি চার, ও ৩টি ছয়ে সাজানো। শেষ পর্যন্ত ৩২৯ বলে ১৯ চার ও ৪টি ছয়ে ২২০ রানে অপরাজিত ছিলেন এ তরুণ তারকা। এবারের আগে ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে জাতীয় লিগের ম্যাচেই বরিশাল বিভাগের বিপক্ষে ২০৪ রান করেছিলেন সিলেটে।

শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে সিরিজ জেতানো সেঞ্চুরির সাইফ ভারত সফরে আগে দেখা পেয়েছেন ডাবলের। এ পারফরম্যান্সের ফলে এ তরুণ বাংলাদেশ টেস্ট দলে জায়গা পাওয়ায় দাবিটা জোড়াল করল বলাই যায়।

সর্বশেষ..