বাণিজ্য সংবাদ

সাড়ে চার হাজার কোটি টাকার ছয় প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় চার হাজার ৪৪৭ কোটি ৭৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ছয় প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সরকারের তহবিল (জিওবি) থেকে চার হাজার ৪৩৯ কোটি ৮৬ লাখ টাকা, বাকি সাত কোটি ৯০ লাখ টাকার সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে অর্থায়ন করা হবে।

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এসব প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এটি ছিল বর্তমান সরকারের ১৯তম একনেক সভা। সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভৌত সুরক্ষা ব্যবস্থা (পিপিএস) নির্মাণ’ প্রকল্পসহ মোট ছয়টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয় সভায়। তিনি বলেন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র সুরক্ষায় প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার।

পরিকল্পনামন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, এ প্রকল্প রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নকশাভিত্তিক ও বাহ্যিক হুমকি মোকাবিলা করবে। নিরাপদ ও সুরক্ষিত পারমাণবিক বিদ্যুৎ উৎপাদনের সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির পাশাপাশি তেজস্ক্রিয় পদার্থের ব্যবস্থাপনা ও নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা, সাইবার নিরাপত্তা ও সংবেদনশীল তথ্য ব্যবস্থাপনা এ প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্য।

তিন হাজার ৪৪৯ কোটি টাকা ব্যয়ে ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভৌত সুরক্ষা ব্যবস্থা (পিপিএস) নির্মাণ’ প্রকল্পটি ২০২৩ সালের মার্চের মধ্যে বাস্তবায়নের লক্ষ্য ধরা হয়েছে।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের পারমাণবিক নিরাপত্তা ও ভৌত সুরক্ষা ব্যবস্থা সেল (এসএসপিসি) এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনী যৌথভাবে প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী আরও জানান, অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের ৩৬৬ কোটি ২৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘যশোর (রাজারহাট)-মনিরামপুর-কেশবপুর-চুকনগর আঞ্চলিক মহাসড়ক (আর-৭৫৫) উন্নয়ন’ প্রকল্প, ৭১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘ফেনী-সোনাগাজী-মুহুরী প্রকল্প সড়কের ৩০তম কিলোমিটারে ৩৯১.৩৫ মিটার দীর্ঘ মুহুরী সেতু এবং বক্তারমুন্সী-কাজিরহাট-দাগনভূঞা সড়কের ১৩তম কিলোমিটারে ৫০.১২ মিটার দীর্ঘ ফজিলাঘাট সেতু নির্মাণ’ প্রকল্প এবং ৩৬১ কোটি ২২ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘কক্সবাজার জেলার একতাবাজার থেকে বানৌজা শেখ হাসিনা ঘাঁটি মহাসড়ক (জেড-১১২৫) উন্নয়ন’ প্রকল্প।

এছাড়া একনেক সভায় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের ৭৯ কোটি এক লাখ টাকা ব্যয়ে ‘আগারগাঁওয়ের শেরেবাংলা নগরে পর্যটন ভবন নির্মাণ (প্রথম সংশোধিত)’ প্রকল্প; পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ১২০ কোটি ৮২ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘সিলেট জেলার সিলেট সদর ও বিশ্বনাথ উপজেলায় দশগ্রাম, মাহতাবপুর ও রাজাপুর পরগনা বাজার এলাকায় সুরমা নদীর উভয় তীরে ভাঙন হতে রক্ষা’ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়।

একনেক সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক, শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এবং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন ও ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামানসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব।

সর্বশেষ..